পরিচয়পত্র বলে শিব সৈনিকদের হাতে নিগৃহীত ব্যক্তি ভারতীয় নৌ কর্মী ছিলেন

বুম মদন শর্মার ছেলের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান তাঁর বাবা দীর্ঘ ১৬ বছর ভারতীয় নৌবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টে যে বলা হচ্ছে যে, শিব সৈনিকদের হাতে নিগৃহীত মদন শর্মা আদৌ ভারতীয় নৌবাহিনীতে নয়, মার্চেন্ট নেভিতে কাজ করতেন, সেই দাবিটি মিথ্যা।

বুম তাঁর পুত্র সানি শর্মার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তাঁর বাবা মদন শর্মা ভারতীয় নৌবাহিনীতে ১৯৭৪ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত চিফ পেটি অফিসার (চিফ ইলেক্ট্রিকাল পাওয়ার) পদে কাজ করেছেন। কেবল অবসর গ্রহণের পরই তিনি মার্চেন্ট নেভিতে অফিসার হিসাবে যোগ দেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে নিয়ে তৈরি একটি কার্টুন হোয়াটঅ্যাপ ফরোয়ার্ড করার পর ৬৫ বছর বয়স্ক প্রবীণ মদন শর্মা শিব সৈনিকদের হাতে নিগৃহীত হন। আক্রান্ত হওয়ার পর শর্মার রক্তাক্ত এবং আঘাতের চিহ্ন লাগা চোখমুখের ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে। শর্মার দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে শিব সেনার এক নেতা ও আরও ৫ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেl একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনার উপর এ ধরনের হামলার ঘটনার নিন্দা করে টুইট করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং।


এর পরেই নেটিজেনরা শর্মার ফেসবুক প্রোফাইল ঘেঁটে বের করেন যে, তিনি ভারতীয় নৌবাহিনীতে নয়, মার্চেন্ট নেভিতে অফিসার হিসাবে কর্মরত এবং সেনাবাহিনীর সঙ্গে তাঁর কোনও সংশ্রব নেই। শর্মার ফেসবুক প্রোফাইলের আর্কাইভ বয়ান দেখুন এখানে


শর্মাকে ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রাক্তন অবসরপ্রাপ্ত অফিসার বলার জন্য নেটিজেনরা বেশ কয়েকজন যাচাই-করা টুইটার ব্যবহারকারীকেও সমালোচনা করেন। পাশাপাশি শর্মা যে বাস্তবিকই একজন নৌবাহিনীর অফিসার ছিলেন সেই মর্মে একটি গ্রাফিকস-ও হোয়াট্স্যাপ এবং ফেসবুকে ভেসে উঠতে থাকে।

আরও পড়ুন: সম্বিত পাত্রর মিথ্যে দাবি জেলের মধ্যে জঙ্গি আজমল কাসভ বিরিয়ানি খেত

তথ্য যাচাই

বুম মদন শর্মার পুত্র সানি শর্মার সঙ্গে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করলে তিনি তাঁর বাবার সেনা-অফিসারের পরিচয়-পত্রটি আমাদের দেখান।

তিনি আরও জানান, তাঁর বাবা ১৯৭৪ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১৬ বছর ভারতীয় নৌসেনার অফিসার পদে কাজ করেছেন। পরিচয়-পত্র (MAH-01/013527) অনুযায়ী শর্মার রেজিস্ট্রেশন নম্বর হলো "201418-W" এবং তাঁর রেজিমেন্টকে নৌবাহিনী হিসাবেই উল্লেখ করা হয়েছে। পরিচয়পত্র অনুযায়ী শর্মার পদাধিকার হলো CHEL(P), যার অর্থ চিফ ইলেক্ট্রিকাল পাওয়ার।

সানি শর্মা তাঁর পিতার 'প্রাক্তন সৈনিকদের স্বাস্থ্য সেবা প্রকল্পে'র একটি স্মার্ট-কার্ডের ছবিও বুমকে দেখান, যাতে লেখা রয়েছে, অবসর গ্রহণের সময় শর্মার পদ ছিল চিফ পেটি অফিসার।

মদন শর্মার ফেসবুক প্রোফাইল নিয়েও সানি তাঁর বক্তব্য পেশ করেন: "এই প্রোফাইলটি যখন তৈরি করা হয়, ততদিনে আমার বাবা মার্চেন্ট নেভিতে অফিসার পদে যোগ দিয়েছেন l ১৬ বছর ধরে ভারতীয় নৌবাহিনীর সেবা করার পরই অবসর নিয়ে তিনি মার্চেন্ট নেভিতে যোগ দেন।" আমরা ভারতীয় নৌবাহিনীর এক অফিসারের সঙ্গে কথা বলেও জানতে পারি যে, মদন শর্মা বাহিনী থেকে অবসর নেবার সময় চিফ পেটি অফিসার পদে অভিষিক্ত ছিলেন।

আরও পড়ুন: কঙ্গনা-বিএমসি বিরোধে অমিতাভ বচ্চন-এর বিএমসিকে সমর্থন করা টুইটটি ভুয়ো

Updated On: 2020-09-16T17:58:20+05:30
Claim Review :   ভারতীয় নৌবাহিনী নয়, মদন শর্মা মার্চেন্ট নেভিতে কাজ করেছিলেন
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story