১৪০ নম্বর থেকে ফোন: মিথ্যে দাবির সঙ্গে ভাইরাল হল মুম্বই পুলিশের ভিডিও

মুম্বই পুলিশ জনস্বার্থে ঘোষণা করছে যাতে সোনিলিভ-এর নতুন শোয়ের প্রচার চমকের ফলে আতঙ্ক না ছড়ায়।

'১৪০' নম্বরটি থেকে আসা কোনও ফোনকল কেউ যেন না ধরেন, সে বিষয়ে রীতিমতো মাইকে ঘোষণা করে সতর্ক করে দিচ্ছে মুম্বই পুলিশ। ১০ জুলাই ২০২০ এমনই একটি ভিডিও হোয়াটসঅ্যাপ ও অন্যান্য সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল।

সোনিলিভ নামে একটি অনলাইন স্ট্রিমিং সার্ভিস তার আগামী শো 'আনদেখি'র জন্য একটি পাবলিসিটি স্টান্ট বা প্রচারে চমক এনেছে। প্রচারের অঙ্গ হিসেবে তারা ১০ জুলাই সকালে বহু লোককে ফোন করে একটি রেকর্ডেড ভয়েস মেসেজ শোনায়, যাতে একটি খুনের ঘটনার সাক্ষী থাকার কথা বলা হয়েছে। ফোনগুলি আসছিল '১৪০' দিয়ে শুরু একটি নম্বর থেকে। ভারতে ১৪০ কোডটি সাধারণত টেলি বিপননকারীরা ব্যবহার করে থাকেন।
বহু টুইটার ব্যবহারকারী এই কলের ব্যাপারে মুম্বই পুলিশকে জানিয়েছেন এবং সোনিলিভকে অনলাইনে যথেষ্ট অসন্তোষের মুখে পড়তে হয়েছে। স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মটি ক্ষমাপ্রার্থনা করেছে এবং জানিয়েছে যে এটি আসলে একটি পরীক্ষামূলক কার্যক্রম ছিল যা দুর্ঘটনাবশত বাইরে বেরিয়ে যায়।
তবে ততক্ষণে যা ক্ষতি হওয়ার তা হয়ে গেছে এবং বহু হোয়্যাটসঅ্যাপ মেসেজ ছড়িয়ে পড়েছে, যাতে বলা হয়েছে যেন কেউ '১৪০' দিয়ে শুরু হওয়া কোনও নম্বর থেকে আসা ফোন না ধরেন।
ভাইরাল হওয়া ক্লিপস
এই ঘটনার পর মুম্বই পুলিশের বিভিন্ন টিমকে নজরদারির সময় জনস্বার্থে ঘোষণা করতে দেখা গেল, এবং '১৪০' দিয়ে শুরু হচ্ছে, এমন কোনও নম্বর থেকে আসা কল না ধরার জন্য সতর্ক করতে দেখা গেল।
কিছু ক্ষেত্রে দেখা গেছে পুলিশ তাদের প্রচারে জানাচ্ছে যে এই নম্বর থেকে আসা ফোন ধরলে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা লোপাট হয়ে যাবে। দাবিটি অসত্য, এবং কেন পুলিশ এই কথা প্রচার করল, তা স্পষ্ট নয়।
আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।
আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।
আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।
যেসব ঘোষণা করা হয়েছে সে বিষয়ে পুলিশের বক্তব্য
বুম এর আগে মহারাষ্ট্র পুলিশের সাইবার সিকিউরিটির ডিআইজি হরিশ বাইজলের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তিনি জানান যে সোনিলিভের প্রোমশনাল কলের ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার পর টহলদারী পুলিশের মোবাইল ভ্যান থেকে ঘোষণা করা হয় এবং সেগুলিই ভাইরাল ক্লিপে দেখা যাচ্ছে।
বাইজল বুমকে বলেন, "সোনিলিভের প্রোমশনাল কলের পর নজরদারিরত পুলিশের মোবাইল ভ্যান থেকে ঘোষণা করা হয় যে এই কলটি ভুয়ো। ভাইরাল হওয়া ক্লিপে যা দেখা যাচ্ছে। অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা লোপাট হওয়ার ব্যপারে যে ক্লিপটি ভাইরাল হয়েছে, সে বিষয়েও আমাদের দফতর থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।"
কনস্টেবলদের ভাইরাল হওয়া ক্লিপের ব্যাপারে মহারাষ্ট্র সাইবার পুলিশ টুইটের মাধ্যমে তাদের বক্তব্য জানিয়েছে। সাইবার পুলিশ জানিয়েছে যে যদি কেউ নিজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য, ওটিপি, ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ডের নাম্বার না জানান, তবে কোনও ভয় নেই।
১৪০ নাম্বার থেকে আসা কলের ব্যাপারে মহারাষ্ট্রের সাইবার ডিআইজি হরিশ বাইজল যা জানালেন:

Updated On: 2020-07-16T16:59:42+05:30
Claim Review :   ভিডিওতে পুলিশকে ১৪০ নম্বর থেকে ফোন কল আসার বিষয়ে সতর্ক করতে দেখা যায়
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story