মুসলমানরা কি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে র‍‍্যালি করেছেন? একটি তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভিডিওটি ২৩ মে ২০১৯ থেকে রয়েছে। সাধারণ নির্বাচনের পর বিজয় উৎসবের সময় সেটি তোলা হয়।

মে ২০১৯-এর একটি ভিডিও আবার প্রচার করা হচ্ছে। আর দাবি করা হচ্ছে যে, সেটি কেরলে তোলা, যেখানে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)-এর সমর্থনে রাস্তায় নেমে ছিলেন।

কিন্তু ভিডিওটি ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টির বিপুল জয়ের পর বিজয় উৎসবের ছবি।

ভিডিওটিতে জনতাকে রাস্তা দিয়ে হাঁটতে দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্যে হাততালি দিচ্ছেন আর হর্ষধ্বনি করছেন। মাথায় ফেজ টুপি-পরা কিছু মানুষকে বিজেপির পতাকা হাতে ছুটতে দেখা যাচ্ছে।

১ মিনিট ১০ সেকেন্ডের ভিডিওটি ফেসবুক আর টুইটারে ছড়াচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে, "কেরলে মুসলমানরা সিএএ এবং এনআরসির সমর্থনে মোদীজি জিন্দাবাদ বলে স্লোগান দিচ্ছেন। মিডিয়া এটি দেখাবে না। যত জনকে সম্ভব ফরওয়ার্ড করুন। জয় নমো, জয় জয় নমো।" সিএএ এবং এনআরসির বিরুদ্ধে দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর তা কঠোর হাতে দমন করার জন্য পুলিশকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে। ইতিমধ্যে, কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন মঙ্গলবার সিএএ খারিজ করার দাবি তুলে রাজ্য বিধানসভায় এক প্রস্তাব আনেন।

ভিডিওটি ফেসবুক ও টুইটারে ভাইরাল হয়েছে। একটি টুইট আর্কাইভ করা আছে এখানে



তথ্য যাচাই

বুম নিশ্চিত হতে পেরেছে যে ভিডিওটি নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হওয়ার বেশ কয়েক মাস আগে তোলা হয়। তাছাড়া, ভিডিওটিতে কেবল রাজনৈতিক দলীয় পতাকা দেখা যাচ্ছে। অথচ সিএএ-র পক্ষে ও বিপক্ষে যে সব র‌্যালি হয়েছে, তাতে অভিনব সব পোস্টার আর স্লোগান ব্যবহার করা হয়েছে।

আবার, জমায়েতে লোকজনকে হিন্দিতে কথা বলতে শোনা যাচ্ছে। কেরলে হিন্দি খুব প্রচলিত ভাষা নয়। আমরা ভিডিওটির কয়েকটি প্রধান ফ্রেম নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। দেখা যায়, ওই একই ভিডিও মে মাসে ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল। দেখে মনে হয়, ভিডিওটি উত্তর প্রদেশে তোলা। সেখানে, বারাণসী থেকে নরেন্দ্র মোদী জিতলে, তাঁর সমর্থকরা একটি বিজয় মিছিল বার করেন। ওই ভিডিওটির ক্যাপশনে বলা হয়, "ইউপিতে মুসলমান ভাইরা মোদীর জয়ে আনন্দ উৎসব করছেন।"

২৩ মে ২০১৯, যে দিন সাধারণ নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হয়, সেদিন সক্রিয় বিজেপি সদস্য কপিল মিশ্র ওই একই ভিডিও টুইট করেন।

ঠিক কোথায় ভিডিওটি তোলা হয়েছিল, বুম তা যাচাই করতে পারেনি। কিন্তু সেটি যে ২৩ মে ২০১৯ থেকে, অর্থাৎ সিএএ পাস হওয়ার অনেক আগে থেকেই ইন্টারনেটে আছে, তা জানা গেছে।

Updated On: 2020-01-05T12:08:38+05:30
Claim Review :  ভিডিও দেখায় মুসলিমরা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে র‍্যালি করে
Claimed By :  Facebook Pages and Twitter Handles
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story