নিউজ১৮, ফার্স্টপোস্ট জলস্তম্ভের পুরনো ভিডিওকে সাইক্লোন নিসর্গ বলে টুইট করেছে

গত বছরের অক্টোবর মাস থেকে অনলাইনে রয়েছে ওই ভিডিওটি। সমুদ্রের মাঝখানে একটি জলস্তম্ভের দৃশ্য বলা হয় তাতে।

সংবাদ চ্যানেল সিএনএন-নিউজ১৮ ও ফার্স্টপোস্ট সমুদ্রে একটি জলস্তম্ভের পুরনো ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেছে যে, সেটি নাকি ঘূর্ণিঝড় নিসর্গের চোখ (কেন্দ্র)। আরব সাগরে ওঠা এই ঝড় গত বুধবার গুজরাট ও মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী অঞ্চলে আঘাত হানে। ১৫ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে, বাতাস আর জলকণা দিয়ে তৈরি এক জলস্তম্ভ দেখা যায় সমুদ্রের মাঝখানে।

এখন-ডিলিট-করা টুইটের ক্যাপশনে বলা হয়েছিল, "#দেখুন – #সাইক্লোন নিসর্গের চোখের চাঞ্চল্যকর ছবি।" সাইক্লোনের চোখ থাকে সেটির কেন্দ্রে। সেটি হল একটি গোলাকৃতি জায়গা, যেখানে ব্যারোমেট্রিক প্রেসার সব চেয়ে কম। দুই সংবাদ সংস্থাই পরে সংশোধনী প্রকাশ করে জানায় যে, ক্লিপটি পুরনো। নিউজ১৮-র সংশোধনী
এখানে
দেখা যাবে; ফার্স্টপোস্টের এখানে
ওই দুটি টুইটের আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে
ক্লিপটি হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে সিএনএন-নিউজ১৮-এর ওয়াটারমার্ক রয়েছে। ফেসবুক পেজগুলি ভিডিওটিকে সঠিক ধরে নিয়েই পোস্ট করে। এটাই মনে করা হয় যে, ঘূর্ণিঝড় নিসর্গের স্থলভূমির দিকে এগিয়ে চলার দৃশ্য দেখা যাচ্ছে ভিডিওটিতে। এবং ভিডিওটির সূত্র হিসেবে ওই দুই সংবাদ সংস্থার নাম উল্লেখ করা হয়।
ভাইরাল হোয়াটসঅ্যাপ ক্লিপটির স্ক্রিনশট।

সাইক্লোন নিসর্গ, দুপুর বারোটার পর আলিবাগে ভূপতিত হয় এবং এই প্রতিবেদন লেখার সময় সেটি মুম্বই শহরের খুব কাছে অবস্থান করছিল।
ভেরিফাইড টুইটার হ্যান্ডেল থেকেও ভিডিওটি টুইট করা হয় এবং ক্লিপটির উৎস হিসেবে নিউজ১৮-এর নাম উল্লেখ করা আছে।
টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
ফেসবুকেও ভাইরাল ভিডিওটি

বুম ভিডিওটিকে কয়েকটি মূল ফ্রেমে ভেঙে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। তার ফলে, ওই একই ভিডিওর কয়েকটি সূত্র বুমের সামনে আসে। কিন্তু দেখা যায়, এই ভিডিওটি ২৫ অক্টোবর ২০১৯-এ ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল। দৃশ্যটির বিবরণে বলা হয়, কোনও এক ঝড়ো আবহাওয়ায় গোয়ার উপকূলে দৃশ্যটি রেকর্ড করা হয়, তখন প্রচণ্ড ঘূর্ণি হাওয়ায় সমুদ্রের জলস্তরের উপরে এই ওই জলস্তম্ভ সৃষ্টি হয়। জল আর বাষ্প দিয়ে তৈরি হয়
জলস্তম্ভ
। অনেক সময় সেগুলি মেঘ পর্যন্ত উঠে যায় এবং সমুদ্রের টর্নেডো বলা হয়ে থাকে সেগুলিকে।

ফেসবুকে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করলে দেখা যায় এই একই ফুটেজ গত বছরের অক্টোবর থেকে সোশাল মিডিয়ায় রয়েছে। অনেকেই বলেছেন গোয়ার ব্যাম্বোলিন বিচ থেকে ভিডিওটি তোলা হয়। বুম অবশ্য এই তথ্য যাচাই করে দেখতে পারে নি।
২৫ অক্টোবর ২০১৯-এ ফেসবুকে আপলোড করা ওই ভিডিওতে পাঞ্জিমে অবস্থিত ব্যাম্বোলিন বিচের লোকেশন ট্যাগও দেখা যাচ্ছে।
কিয়ার নামের এক সুপার সাইক্লোন গত বছর গোয়ার একটি অঞ্চলে তাণ্ডব চালায়। ভারত মহাসাগরের উত্তরভাগে সেটি সৃষ্টি হয়েছিল ২৫ অক্টোবর সেটি গোয়ায় আছড়ে পড়ে। ইউটিউব ভিডিওর বিবরণে বলা হয় সাইক্লোন কিয়ার সময় এক মৎসজীবী ভিডিওটি তোলেন।

ওই ভিডিওটি কোথায় এবং কবে তোলা হয়েছিল, বুম তা নিশ্চিতভাবে জানতে না পারলেও, বুম নিশ্চিত যে এই ভিডিওটি পুরনো এবং সাইক্লোন নিসর্গের দৃশ্য নয়।

Updated On: 2020-06-05T12:00:13+05:30
Claim Review :  ভিডিও দেখায় সাইক্লোন নিসর্গের কেন্দ্রের নাটকীয় দৃশ্য
Claimed By :  Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story