ইমানুয়েল মাকরঁর মন্তব্যের জেরে ফ্রান্সের জাতীয় দল ছাড়েননি পল পোগবা

সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল মাকরঁর ইসলাম নিয়ে মন্তব্যের জেরে জাতীয় দল ছেড়েছেন—গণমাধ্যমের এমন খবর উড়িয়ে দেন পল পোগবা।

বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে যে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকরঁর ইসলাম সম্পর্ক যে মন্তব্য করেছেন, তার প্রতিবাদে পল পোগবা জাতীয় দল ছেড়ে দিয়েছেন। ফ্রান্সের ফুটবল খেলোয়াড় পল পোগবা এই দাবি একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন।

পোগবা ধর্মে মুসলমান। তিনি ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সানে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন। সঙ্গে একটি গ্রাফিক সুপারইম্পোজ করে দেওয়া হয়েছে, তাতে লেখা হয়েছে "গ্রহণযোগ্য নয়। ভুয়ো খবর।" ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের এই ফুটবলার টুইটারেও এই একই ছবি শেয়ার করেছেন। পোগবা ক্যাপশনে খবরটিকে "১০০% ভুল" বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি আরও জানিয়েছেন, যারা এই খবর প্রকাশ করেছে, তাদের বিরুদ্ধে তিনি আইনি পদক্ষেপ নেবেন।

১৯৫স্পোর্টস নামে একটি আরবি ওয়েবসাইট এই গুজব নিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তারা জানায় মাকরঁর করা একটি বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ফ্রান্সের জাতীয় দল থেকে পোগবা নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। ওই প্রতিবেদনে বলা হয় যে, মাকরঁ ইসলামকে আন্তর্জাতিক আতঙ্কবাদের উৎস বলে বর্ণনা করেছেন। তবে মাকরঁ এই ধরনের কোনও মন্তব্য করেছেন, এমন কোনও প্রমাণ বুম খুঁজে পায়নি।

অভিযোগ করা হয়েছে যে স্যামুয়েল প্যাটি নামে এক শিক্ষককে শিরোশ্ছেদ করে হত্যা করার পর মাকরঁ এই মন্তব্য করেছেন। স্যামুয়েল প্যাটি তাঁর ক্লাসকে প্রফেট মহম্মদের ছবি দেখিয়েছিলেন বলে তাঁকে হত্যা করা হয়। ১৯৫স্পোর্টস'র প্রতিবেদনে বলা হয় যে, মাকরঁর মন্তব্য এবং তিনি মৃত শিক্ষক প্যাটিকে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান দিয়ে পুরস্কৃত করবেন বলে যে ঘোষণা করেছেন, তার জেরেই পোগবা আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: #UninstallMyntra: তৈরি না করা পুরনো গ্রাফিক ঘিরে মিথ্যা প্রচার

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য ডেইলি মেল এবং ডেলি মিরর এই খবরটি প্রকাশ করেছে। ভারতীয় ওয়েবসাইট উইওন এবং রিপাবলিক ওয়ার্ল্ডেও এই খবর প্রকাশিত হয়েছে।দ্য সান, দ্য ডেইলি মেল এবং ডেলি মিরর দুঃখ প্রকাশ করে তাদের প্রতিবেদন সংশোধন করে নিয়েছে কিন্তু উইওন এবং রিপাবলিক ওয়ার্ল্ডে নিজেদের ভুল স্বীকার না করেই তাদের প্রতিবেদন নতুন তথ্য অনুযায়ী ঠিক করে নিয়েছে।

এই দাবিটি এখোনো পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে চলেছে এবং বহু ফেসবুক এবং টুইটার ব্যবহারকারী জাতীয় দল থেকে সরে যাওয়ার জন্য পোগবাকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন।

পোস্টটির আর্কাইভ এখানে দেখতে পাওয়া যাবে।

পোস্টটির আর্কাইভ এখানে দেখতে পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন: স্পিলবার্গের ছবিতে লেনিনের ভূমিকায় ডিক্যাপ্রিও? পোস্টারটি কাল্পনিক

এই পোস্টটির আর্কাইভ এখানে দেখতে পাওয়া যাবে।

এই টুইটটির আর্কাইভ এখানে দেখতে পাবেন।

মাকরঁকে উদ্ধৃত করে মিথ্যে মন্তব্য

মাকরঁ ফ্রান্সে "ইসলামি বিচ্ছিন্নতাবাদ"-এর সমালোচনা করেছেন, কিন্তু তিনি ইসলামকে অতাঙ্কবাদের উৎস বলে উল্লেখ করেছেন, সে রকম কোনও রেকর্ড কোথাও পাওয়া যায়নি। সেপ্টেম্বরে শার্লি এবদো নামের পত্রিকায় নবী মহম্মদকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র পুনঃপ্রকাশিত হওয়ার পর ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি ফ্রান্সের "ঈশ্বর সম্পর্কে মন্তব্যের অধিকারের" সপক্ষে মন্তব্য করেন। ২০১৫ সালে এই পত্রিকার প্যারিসের অফিসে দুজন বন্দুকধারী হামলা চালায়। ওই দুজনকে যে ১৪ জন সাহায্য করেছিল তাদের বিচার শুরু হওয়ার পর পত্রিকায় ওই ছবিটি আবার প্রকাশ করা হয়।

২ অক্টোবর মাকরঁ মন্তব্য করেছিলেন, 'ইসলাম এক বৈশ্বিক সঙ্কটে মধ্যে রয়েছে' এবং 'ইসলামি বিচ্ছিন্নতাবাদ ফ্রান্সের জন্য একটি বিপদ'। সে দিনই মাকরঁ ধর্মীয় বিচ্ছিন্নতার বিরুদ্ধে একটি আইনও ঘোষণা করেন। আইনটি সে দেশ ও তার মূল্যবোধকে রক্ষা করবে বলে জানান মাকরঁ— সবার জন্য সাম্য ও ক্ষমতায়নের মূল্যবোধ। প্যাটির স্মরণে এক ভিজিলে উপস্থিত ম্যাকরঁ বলেন, এই স্কুল শিক্ষক ফরাসি প্রজাতন্ত্রের মুখ, এবং তিনি যুক্তি ও স্বাধীনতার প্রতীক।

আরও পড়ুন: দুর্গা ঠাকুর বিসর্জনে মুঙ্গেরে পুলিশের বর্বরতা ছড়াল পশ্চিমবঙ্গের বলে

Claim Review :   ইসলাম আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের উৎস ইমানুয়েল মাকরঁর মন্তব্য জেরে ফ্রান্সের জাতীয় দল ছাড়লেন পল পোগবা
Claimed By :  Media Reports, Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story