না, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে রানা আয়ুব আফজল গুরুকে নিয়ে টুইট করেননি

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া স্ক্রিনশটটি ফোটোশপ করে তৈরি করা হয়েছে, সাংবাদিক রানা আয়ুব এই ধরনের কোনও টুইট করেননি।

সাংবাদিক রানা আয়ুব ফেসবুক ও টুইটারে মঙ্গলবার জানিয়েছেন যে, তিনি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু নিয়ে কোনও টুইট করেননি এবং সোশাল মিডিয়ায় তাঁর নামে এই নিয়ে ভুয়ো প্রচার চলছে।

আয়ুবের নামে টুউটের একটি স্ক্রিনশট ভাইরাল করা হয়েছে, যেটিতে সোমবার প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের একটি ছবি দিয়ে ক্যাপশনের মতো লেখা হয়েছে: "যিনি আফজল গুরুর ক্ষমাপ্রার্থনার আর্জি খারিজ করেছিলেন, তিনি এখন মৃত l আফজল গুরু এখন শান্তিতে থাকবেন।"

মহম্মদ আফজল গুরু ২০০১ সালে ভারতের সংসদে হামলা চালানোর দায়ে দোষী সাব্যস্ত হন এবং ২০১৩ সালে তাঁকে ফাঁসিতে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। এ বিষয়ে আরও বিশদে জানতে পড়ুন এখানে

রানা আয়ুব জানাচ্ছেন, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপে এই ভুয়ো স্ক্রিনশটটি ছড়িয়ে দেওয়ার ফলে তাঁকে অনলাইনে প্রভূত হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। তাঁর সেই পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আয়ুব সেই ভুয়ো টুইটটির সঙ্গে তাঁকে যে ট্যাগ করেছে, তার টুইটও উদ্ধৃত করেছেন।

বুম দেখেছে, বেশ কিছু ফেসবুক পোস্ট ও টুইট যেখানে ভুয়ো স্ক্রিনশটটি শেয়ার করে মিথ্যে দাবি করা হয় যে, আয়ুব পরে তাঁর টুইটটি মুছে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: ২০১৮ তে নেপালে নাবালিকা ধর্ষণ ও খুনে প্রতিবাদের ছবি ছড়াল ভারতের বলে

তথ্য যাচাই

বুম এই ভাইরাল স্ক্রিনশটটি বিশ্লেষণ করে দেখেছে, এটি যে ফোটোশপ করে বিকৃত করা হয়েছে, তার চিহ্ন স্পষ্ট। আমরা দেখেছি, ছবিটি সম্পাদনা করার স্পষ্ট চিহ্ন, যা এখানে লাল কালিতে গোল করে চিহ্নিত করা হয়েছে। তা ছাড়া টুইটের পাশে কখন টুইটটি করা হয়েছে, তার সময়ের যে উল্লেখ থাকে, সেটাও মুছে দেওয়া।


তা ছাড়া সোশাল মিডিয়ায় যে স্ক্রিনশটটি ঘুরছে, তাতে কতজন মন্তব্য করেছে, রিটুইট করেছে বা 'লাইক' দিয়েছে, তারও উল্লেখ থাকে। যদি অনেক লোক এই স্ক্রিনশটের ছবি তোলে, তাহলে ছবিগুলোর মধ্যে কিছু পার্থক্য এসে যাবে।


আমরা রানা আয়ুবের 'সেভ' করে রাখা টুইটার অ্যাকাউন্টের আর্কাইভও দেখেছি। (দেখুন এখানে) কিন্তু প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নাম করে আফজল গুরুর নাম দিয়ে কোনও টুইট দেখতে পাইনি।

টুইটারে কেউ যদি তার টুইট মুছেও দেয়, তাহলেও তার উত্তরে অন্য যে টুইটার ব্যবহারকারীরা মন্তব্য করেছে, সেগুলো থেকে যায়। যেহেতু স্ক্রিনশটে ২৭৬ জনের মন্তব্য করার কথা বলা হয়েছে, তাই আমরা ৩১ অগস্ট, অর্থাৎ প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুর দিন সেই মন্তব্যগুলির খোঁজ করি, কিন্তু সে ধরণের একটি মন্তব্যও আমাদের নজরে আসেনি।

যে মূল টুইটটি থেকে এই স্ক্রিনশটটি বানানো হয়েছিল, বুম সেটাও দেখেছে। নীচের তুলনা থেকেই স্পষ্ট হবে যে, মূল টুইটটির যে প্রতিক্রিয়া হয়েছে, এবং স্ক্রিনশটে যে সব মন্তব্য রয়েছে, সেগুলি প্রায় একই রকম।


প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি 'ভারতরত্ন' প্রণব মুখোপাধ্যায় গত সোমবার ৮৪ বছর বয়সে প্রয়াত হন। অগস্টের মাঝামাঝি তাঁর মস্তিষ্কে জমাট-বাঁধা রক্তের অস্ত্রোপচার করতে তাঁকে দিল্লির সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। হাসপাতালে ভর্তির সময়ে পরীক্ষায় ধরা পড়ে যে তিনি কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত। অচিরেই তিনি গভীর কোমায় চলে যান এবং ক্রমশই তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। তাঁর ফুসফুসে একটি সংক্রমণ তাঁকে 'সেপটিক শক্'-এ পাঠিয়ে দেয় এবং ৩১ অগস্ট তাঁর মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন: মালদার রাস্তায় খানাখন্দের ছবি উত্তরপ্রদেশ ও ছত্তিশগড়ের বলে ভাইরাল

Updated On: 2020-09-02T19:51:28+05:30
Claim Review :   স্ক্রিনশট দেখায় রানা আইয়ুবের প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু নিয়ে টুইট
Claimed By :  Twitter users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story