না, রাস্তায় ওল্টানো ট্রেলারের এই ভিডিওটি ঘূর্ণিঝড় আমপানের তাণ্ডব নয়

বুম দেখে ভারী মালবাহী ট্রাকগুলি রাস্তায় উল্টে যাওয়ার ভিডিওটি অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলামে ২০১৮ সালে তিতলির দাপটের ঘটনা।

অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলামে ২০১৮ সালে ঘূর্ণিঝড় তিতলির দাপটে রাস্তার পাশে ট্রেলার উলটে যাওয়ার পুরনো ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করে মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে যে, সাম্প্রতিক আমপান সাইক্লোনের তাণ্ডবে ২ নম্বর জাতীয় সড়ক দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে সিঙ্গুর পেরিয়ে নাকি এই অঘটন ঘটেছে।

১ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি একটি চলন্ত গাড়ির ভেতর থেকে রেকর্ড করা। ভিডিওটিতে পর পর ৫ টি ট্রেলার রাস্তার একপাশে উল্টে থাকতে দেখা যায়। রাস্তার পাশে দেখা যায় বিস্তীর্ণ জলমগ্ন এলাকা। রাস্তার ধারের গাছগুলিতে দেখা যায় বিদ্ধস্ত ঝড়ের ছাপ।

ভিডিও দেখলেই মনে হয় প্রবল ঝড়ের তাণ্ডবের পরে তোলা দৃশ্য। ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ে, সিঙ্গুর পেরিয়ে।"

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে, আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম ক্যপশন সার্চ করে দেখে ভিডিওটি ফেসবুকে একই বয়ানে ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুক সার্চের ফলাফল।

টুইটারেও এই ভিডিওকে পোস্ট করে দাবি করা হয়েছে এটি আমপান ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবের দৃশ্য।

টুইটগুলি আর্কাইভ করা আছে এখানে এবং এখানে


তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির কয়েকটি মূল ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখে ভিডিওটি সম্প্রতি আছড়ে পড়া আমপানের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গের সিঙ্গুর কিংবা ওড়িশার কোনও অঞ্চলের ঘটনা নয়। ভিডিওটি ২০১৮ সালে অন্ধ্র উপকূলে হওয়া আরেকটি সামুদ্রিক ঝড় 'তিতলি'র সময়ের ঘটনা।

ভিডিওটি ২০১৮ সালের ১১ অক্টোবর ফরাসি ভিডিও শেয়ারিং সাইট ডেইলিমোশানে আপলোড করেছিল নিউজফ্লেয়ার। নিউজফ্লেয়ার ওয়েবসাইট ব্যবহারকারীরা খবরের ভিডিও আপলোড করে পারিশ্রামিক পান। নিউজফ্লেয়ার ভিডিওটিকে তিতলির প্রভাবে ভারী ট্রাক উল্টে যাওয়ার ঘটনা বলে বর্ণমা করেছে।

ডেউলিমোশানে ভিডিওটির শিরোনাম লেখা হয়েছিল, "সাইক্লোন তিতলি একাধিক ভারী ট্রাককে ভারতের রাস্তায় উল্টে দিয়েছে"

(মূল ইংরেজি শিরোনাম: "Cyclone Titli overturns several heavy trucks on Indian highway")

ইংরেজিতে কিওয়ার্ড সার্চ করে বুম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে ভিডিওটির সন্ধন পায়। ভিডিওটি ২০১৮ সালের ১২ অক্টোবর আপলোড করা হয়েছিল ওই ওয়েবপেজে। ভিডিওটির বর্ণনাতে এটিকে শ্রীকাকুলামের কাঞ্চিলি জাতীয় সড়কের উপর তিতলির প্রভাবে ট্রাক উল্টে যাওয়ার ঘটনা বলা হয়েছে। ভিডিওটির শিরোনাম লেখা হয়েছিল, "সাইক্লোন তিতলি: ভয়ানক বাতাস অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলামে ট্রাককেও উলটে দিয়েছে।" (মূল ইংরেজিতে শিরোনাম: "CYCLONE TITLI: BRUTAL WINDS OVERTURN TRUCKS IN SRIKAKULAM, ANDHRA PRADESH")

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে থাকা ভিডিওটির স্ক্রিনশট।

নীচের ছবিতে ভাইরাল ভিডিও ও টাইমস অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবপেজে থাকা ভিডিওটির তুলনা করা হল।

বামে ভাইরাল হওয়া ভিডিও এবং ডানে 'টাইমস এফ ইন্ডিয়াতে প্রকাশিত ভিডিও।

বুধবার দুপুরে আছড়ে পরা সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড় আমপানের তাণ্ডবে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণের ৬ টি জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দুই ২৪ পরগণা জেলায় তাণ্ডবের হার সবচেয়ে বেশি। কলকাতা, শহরতলি ও দূরবর্তী জেলাগুলিতে বিস্তীর্ণ এলাকায় বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে ও খুঁটি উপড়ে গিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন। শহরের আবাসন গুলিতেও জল সরবারাহ ব্যবস্থা বিপর্যন্ত।

টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও রাস্তায় গাছ পড়ে থাকায় ত্রাণ ও উদ্ধারের কাজ ব্যাহত হচ্ছে। বাঁধ ভেঙ্গে সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলকা জলমগ্ন। বিভিন্ন জেলায় ধান, তিল, মরশুমি ফল ও সব্জি চাষে ব্যাপক ক্ষতি করেছে আমপান। কাঁচা বাড়ি ভেঙ্গে কোভিড-১৯ আবহে এখন বহু মানুষের জীবন-জীবিকার টানাটানি।

সতর্কতা হিসেব আগেই ৫ লক্ষ মানুষকে সাইক্লোন সেন্টারে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। প্রাণহানির সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৮০। শুক্রবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয় ও রাজ্যপাল জগদীপ ধানখড় আকাশ পথে দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করেন।

পরে বসিরহাটে এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ১০০০ কোটি টাকার বিশেষ অনুদানের সহায্যের কথা ঘোষণা করেন। বিরোধীরা এক টেলিকনফারেন্সে একজোট হয়ে এই ধ্বংসলীলাকে জাতীয় বিপর্যয় ঘোষনার দাবি জানিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী পরে উড়িশ্যার উদ্দেশে রওনা হন। ৫০০ কেটি টাকা ত্রাণ বরাদ্দ করা হয়েছে উড়িশ্যার সাহায্যার্থে।

আরও পড়ুন: ২০১৪'র আগ্রার ছবিকে হরিয়ানায় মুসলিম পরিবারের ধর্মান্তরিতকরণ বলা হল

Updated On: 2020-05-22T23:52:51+05:30
Claim Review :  ভিডিও দেখায় আমপানের দাপটে দুর্গাপুর জাতীয়সড়কে সিঙ্গুরের পর ট্রেলার উল্টে যায়
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story