না, এটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকারি বিমানের ভিতরের সজ্জা নয়

এ ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ছবিটি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার বিমানের, মোদীর জন্য ভারত সরকারের কেনা বোয়িং ৭৭৭ নয়।

একটি বিমানের ভিতরকার ছবি শেয়ার করে ভুয়ো দাবি করা হচ্ছে যে, এটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্যবহারের জন্য ভারত সরকারের কেনা বোয়িং ৭৭৭-৩০০-ইআর-এর অভ্যন্তর।

আসলে যে ছবিটি শেয়ার করা হচ্ছে, সেটি বোয়িং-৭৭৭-এর নয়, বরং বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার বিমানের একটি বিলাসবহুল সংস্করণের ভিতরের চিত্র।

শেয়ার করা ছবিটি টাইমস নাও ওয়েবসাইটে ২০২০ সালের ৮ জুন প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট, যার শিরোনাম ছিলঃ "ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলটদের দ্বারা চালিত এবং আধুনিক ক্ষেপণাস্ত্রে সজ্জিতঃ সেপ্টেম্বর মাসেই পৌঁছে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেনা ভিআইপি ৭৭৭ বোয়িং বিমান"। ছবির সঙ্গেই এ ধরনের দুটি বিমান কিনতে কত খরচ পড়বে, সে কথাও বিজনেস টুডে পত্রিকার একটি প্রতিবেদনের সূত্রে জানানো হয়েছিল।

হিন্দি ক্যাপশনে শেয়ার হওয়া এই পোস্টটিতে লেখা হয়েছে, এই ভিআইপি বোয়িং ৭৭৭ বিমানটির অন্তঃসজ্জা এবং আসবাবপত্র অত্যন্ত বিলাসবহুলl "এর সৌম্দর্য, আরাম-আয়েশের বন্দোবস্ত থেকে জনসাধারণ একটা ধারণা করতে পারবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঠিক কী ধরনের বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছেন।"

ফেসবুক এবং টুইটার, উভয় মিডিয়াতেই এই পোস্ট শেয়ার হচ্ছে। ফেসবুকের পোস্টগুলির আর্কাইভ বয়ান দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে আর টুইটারে শেয়ার হওয়া পোস্টগুলির আর্কাইভ বয়ান দেখতে পারেন এখানে এবং এখানে

আরও পড়ুন: ২ হাজার টাকার জাল নোট তৈরি চক্রের এই ভাইরাল ভিডিওটি ভারতের নয়

তথ্য যাচাই

বুম বিমানের অন্তঃসজ্জা সম্পর্কে অনুসন্ধান করতে গিয়ে প্রাইভেট ফ্লাই নামে চার্টার্ড বিমান সরবরাহকারী সংস্থার একটি প্রতিবেদন খুঁজে পেয়েছে। প্রতিবেদনটি বোয়িং কোম্পানিরই তৈরি বোয়িং ৭৮৭-৮ নামক প্রশস্ত বিমান নিয়ে লেখা।
নীচে ভুয়ো পোস্টটির ছবি এবং প্রাইভেট ফ্লাইয়ের প্রতিবেদনের ছবির তুলনা করতে তার স্ক্রিনশট দেওয়া হলো:

এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান চিহ্নিত বোয়িং ৭৪৭ বিমানগুলিতেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সফর করে থাকেন।
২০০৬ সালে বোয়িং কোম্পানির কাছ থেকে যে ৬৮টি বিমান এয়ার ইন্ডিয়ার কেনার জন্য বরাত দেওয়া ছিল, এ বছর ফেব্রুয়ারিতেই তার মধ্যে দুটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর বিমানের ফরমাশ অন্তর্ভুক্ত করা হয় রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর ব্যবহারের জন্য। এই জুলাই মাসেই উন্নততর নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্বলিত ওই দুটি বিমান পৌঁছে যাওয়ার কথা ছিল, কিন্তু কোভিড-১৯ অতিমারীর কারণে সেটা স্থগিত হয়ে গেছে। সংবাদপত্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী অতঃপর সেপ্টেম্বর মাসে ওই দুটি বিমান ভারতের হাতে অর্পিত হওয়ার কথা।
ভারতের ফরমাশ করা দুটি বোয়িং ৭৭৭ বিমানের অন্তঃসজ্জা বুম খতিয়ে দেখার সুযোগ পায়নি।

Claim Review :   ছবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জন্য আসা নুতন বোয়িং ৭৭৭ বিমানের আভ্যন্তরীন সজ্জা দেখা যাচ্ছে
Claimed By :  Facebook &Twitter Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story