সেনাবাহিনীর উদ্দেশে ইন্দিরা গাঁধীর ভাষণের ভাইরাল ছবিটি গালওয়ানের নয়

জিও-লোকেটের সাহায্যে বুম জায়গাটি চিহ্নিত করেছে এবং দেখেছে যে ছবিটি লেহ-তে তোলা, গালওয়ান উপত্যকায় নয়।

ভারতবর্ষের ভূতপূর্ব প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গাঁধীর লেহ'তে তোলা একটি ছবিতে শ্রীমতি গাঁধীকে ভারতের সশস্ত্র সেনাবাহিনীর উদ্দেশে ভাষণ দিতে দেখা যাচ্ছে। বর্তমান ভারত-চিন সমস্যার আবহে এই ছবিটি লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় তোলা বলে দাবি করে শেয়ার করা হচ্ছে।

প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) ওয়েবসাইট থেকে বুম এই ছবিটি পায়। ছবিটির সঙ্গে যে ক্যাপশন ছিল তা থেকে জানা যায় যে ছবিটি ১৯৭১ সালে লেহ'তে তোলা হয়েছিল। ক্যাপশনে সীমান্তরক্ষা বাহিনীকে এই ছবির জন্য কৃতজ্ঞতা জানানোও হয়েছে।
ভূ-নির্ণায়ক পদ্ধতি বা জিও-লোকেট ব্যবহার করে আমরা আরও নিশ্চিত হই যে এই ছবিটি সত্যিই লেহতে তোলা হয়েছিল।
ভারত-চিন সংঘর্ষের আবহে এই সাদা কালো ছবিটি ভাইরাল হয়েছে। সম্প্রতি ১৫ এবং ১৬ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চিন সংঘর্ষ হয়। দু'দেশের এই সংঘর্ষের ফলে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন। নিহতদের মধ্যে এক জন কম্যান্ডিং অফিসারও আছেন। পিপল'স লিবারেশন আর্মির কত জন মারা গেছেন, সে বিষয়ে বেজিং কিছু জানায়নি।
ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী সেনাবাহিনীর সামনে একটি মঞ্চের উপর থেকে ভাষণ দিচ্ছেন, পিছনে পর্বতসারি দেখা যাচ্ছে। পোস্টটির সঙ্গে হিন্দিতে যে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে তাতে লেখা হয়েছে, "গালওয়ান উপত্যকায় সেনাবাহিনীর উদ্দেশে ইন্দিরা গাঁধীর ভাষণ দেওয়ার এই ছবি দেখে বোঝা যায় এ দেশে ওই এক জনই সিংহী ছিলেন। সরকার এখন ইঁদুরদের হাতে চলে গেছে, তাদের রাজত্বে আমাদের সীমান্তে ঢুকে পড়ে ২০ জন জওয়ানকে মেরে ফেলা হল। আর প্রধানমন্ত্রী বলছেন কেউ আমাদের সীমান্তে ঢোকেনি। ওই ২০ জন সৈন্য নিজে নিজেই মারা গেছে।"
(হিন্দি: गलवान घाटी में जवानों को संबोधित करती इंदिरा गांधी का यह फ़ोटो दर्शाता है कि शेरनी तो देश मे एक ही थी। अब तो सरकार चूहों के हाथ मे है जिनके राज में चीन हमारी सीमा में घुस कर 20 जवानों को मार देता है और प्रधानमंत्री कहते हैं कि कोई सीमा में घुसा ही नही। 20 जवान तो अपने आप ही मर गए)
নীচে পোস্টটি দেখতে পাবেন এবং আর্কাইভড ভার্সন দেখতে হলে এখানে, এখানে এবং এখানে ক্লিক করুন।

বিভিন্ন যাচাই করা টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এই টুইটটি একই ক্যাপশনের সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ইউপি কংগ্রেস, দমন অ্যান্ড দিউ
কংগ্রেস সেবাদল
, অলকা লাম্বাও (কোট-টুইট করেছেন) আছেন।


ছবিটি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে।
বুম ছবিটির উপর রিভার্স ইমেজ সার্চ চালায় এবং কয়েকটি প্রতিবেদন দেখতে পায় যাতে এই ছবিটিকে লেহ-তে ইন্দিরা গাঁধীর সঙ্গে জওয়ানদের সাক্ষাৎকারের ছবি বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

আমরা একটি টুইটও দেখতে পাই যাতে দাবি করা হয়েছে যে, এই ছবিটি লেহর এবং এটি ১৯৭১ সালে তোলা হয়েছে।
বুম এর পর কিওয়ার্ড সার্চ করে এবং প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার(পিটিআই) আর্কাইভে ছবিটি দেখতে পায়।

ছবিটির ক্যাপশনে লেখা ছিল, "রিট্রান্সমিশন...বি-২০৪, ডেল-৩০১০৮৬-অক্টোবর ৩০, ২০০৯- নিউ দিল্লি: ১৯৭১ সালে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী স্বর্গীয়া ইন্দিরা গাঁধী লেহতে সেনা জওয়ানদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিচ্ছেন। তাঁর যে সব ছবি খুব কম দেখতে পাওয়া যায় এই ছবিটি সেগুলির মধ্যে একটি। দেশ তাঁর ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করতে চলেছে। পিটিআই ফোটো, কৃতজ্ঞতা ডিপিআর ডিফেন্স"।
(ইংরেজি: 'RETRANSMISSION.....B - 204, DEL - 301086 - OCTOBER 30, 2009 - New Delhi: One of the rare pictures of former Prime Minister late Indira Gandhi addressing jawans in Leh in 1971, as the nation prepares to observe her 25th death anniversary. PTI Photo/ Courtesy DPR Defence'.)
বুম ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্রের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছে। তাঁর কাছ থেকে উত্তর পেলেই এই প্রতিবেদনে তা জানানো হবে।
ছবিটির জিও লোকেটিং
ছবিটিতে যে সব ছোটছোটো জিনিস দেখা যাচ্ছে এবং সঙ্গে যে পর্বতের অংশ দেখা যাচ্ছে, তা ভাল করে দেখলে বোঝা যাবে যে ছবিটি লেহতে ভারতীয় সশস্ত্র সেনাবাহিনীর একটি প্রতিষ্ঠানে তোলা হয়। লেহ'র মিলিটারি এস্টাব্লিশমেন্টের চারপাশের দৃশ্য লক্ষ্য করে আমরা আমাদের সার্চের বিষয়টিকে আরও ছোট করি।
গুগল আর্থ
ব্যবহার করে আমরা ওই পর্বতের টোপোগ্রাফি মিলিয়ে দেখি এবং নিশ্চিত হই এই ছবিটি লেহতে তোলা হয়েছিল, গালওয়ান উপত্যকায় নয়। গুগল ম্যাপ অনুযায়ী গালওয়ান উপত্যকা পূর্ব লাদাখে অবস্থিত এবং লেহ থেকে প্রায় ২০০ কিমি দূরে।



Updated On: 2020-06-24T21:08:02+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গাঁধী গালওয়ানে সেনা জাওয়ানদের উদ্দেশ্য বক্তৃতা দিচ্ছেন
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story