এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট দীপক সাঠের গান বলে ভাইরাল প্রক্তন নৌসেনার ভিডিও

বুম যাচাই করে দেখে ভিডিওটিতে যিনি গান গাইছেন, তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত নৌসেনা আধিকারিক।

ভারতীয় নৌবাহিনীর অবপসরপ্রাপ্ত ভাইস অ্যাডমিরাল গিরীশ লুথরা গাইছেন হিন্দি সিনেমার জনপ্রিয় গান "ঘর সে নিকলতে হি"— এই ভিডিওটিকে শুক্রবার রাতে কেরলের বিমান দুর্ঘটনায় মৃত এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট দীপক সাঠের ভিডিও বলে দাবি করে শেয়ার করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় দুবাই থেকে কালিকট আসার সময় এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস ফ্লাইট কোঝিকোড় বিমানবন্দরে ভেঙ্গে পড়ে। তার পরই এই ক্লিপটি ভাইরাল হয়। এই দুর্ঘটনায় ১৮ জন যাত্রীর মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে পাইলট-ইন-কম্যান্ড দীপক সাঠেও রয়েছেন। বিমানটি রানওয়ে থেকে ছিটকে ৩৫ ফুট গভীর উপত্যকায় পড়ে যায়, তার পর দুই টুকরো হয়ে ভেঙ্গে যায়। বন্দে ভারত মিশনের উদ্যোগে বিমানটি ১৯০ জন যাত্রী নিয়ে কালিকটে যাচ্ছিল।

সাঠে ভারতীয় বিমানবাহিনীর প্রাক্তন উইং কম্যান্ডার। একাধিক সামরিক সম্মানে সম্মানিত সাঠে ফাইটার পাইলট হিসাবে ভারতীয় বিমানবাহিনীতে ২২ বছর কাজ করেছেন।

এই বিমানচালকের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য হিসাবে ভিডিওটিকে শেয়ার করার অনুরোধের ক্যাপশন নিয়ে ৪.০৮ মিনিটের এই ভাইরাল হওয়া ক্লিপটি শেয়ার করা হয়েছে। ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "দীপক বসন্ত সাঠে: ভারতীয় বিমানবাহিনীর সম্মানিত অফিসার, যিনি এয়ার ইন্ডিয়ার হতভাগ্য উড়ানটির চালক ছিলেন।"

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

কেরল বিজেপির রাজ্য সহসভাপতি এ পি আবদুল্লাকুট্টি মিথ্যে দাবির সঙ্গে এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন।

বুম তার হোয়্যাটসঅ্যাপ হেল্পলাইনে (৭৭০০৯০৬১১১) এই ক্লিপটি পায়।


তথ্য যাচাই

'আই এ আফ' ও 'ঘর সে নিকলতে হি' এই কিওয়ার্ড দিয়ে সাধারণ গুগল সার্চ করে আমরা একই ভিডিও দেখতে পাই। এই ভিডিওতে যাঁকে গান গাইতে দেখা গেছে, তাঁকে ভাইস অ্যাডমিরাল গিরিশ লুথরা (অবসরপ্রাপ্ত) বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। লুথরা ওয়েস্টার্ন ন্যাভাল কমান্ডের ফ্লাগ অফিসার কম্যান্ড-ইন-চিফ হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

এই আধিকারিক ভিডিওতে যে ইউনিফর্ম পরে আছেন তা ভারতীয় নৌবাহিনীর অফিসিয়াল ইউনিফর্ম।

ভারতীয় নৌবাহিনীর 'স্বর্ণজয়ন্তী' উদযাপন অনুষ্ঠানে ভাইস অ্যাডমিরাল লুথরা এই জনপ্রিয় গানটি গান। ১৯৬৮ সালের ১ মার্চ সরকারি ভাবে ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রতিষ্ঠা হয়।

আমরা দ্য কুইন্টের ২০১৯ সালের ৭ মার্চ তারিখের একটি প্রতিবেদন দেখতে পাই। ওই প্রতিবেদনে বলা হয় ইউটিউবে এই ভিডিওটি ২০১৯ সালের ৫ মার্চ প্রকাশিত হলেও ভিডিওটি আসলে রেকর্ড করা হয়েছিল ২০১৮ সালের মার্চ মাসে।

সংবাদ প্রতিবেদন

মালায়লম সংবাদ সংস্থা মাথ্রুভূমি কেরলে বিমান দুর্ঘটনা নিয়ে কিছু অসমর্থিত তথ্য প্রকাশ করে। তারা জানায় যে এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস থেকে উদ্ধার হওয়া ৪০ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ বলে জানা গেছে। বুম এই তথ্যের সত্যতা যাচাই করে এবং এটি ভুল তথ্য বলে প্রমাণ করে। এ বিষয়ে পড়ুন এখানে

Claim Review :   ভিডিওর দাবি কেরলে এয়ার ইন্ডিয়া বিমান দূর্ঘটায় মৃত পাইলট দীপক সাঠের গাওয়া গান
Claimed By :  Facebook Pages & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story