সোশাল মিডিয়া পোস্টে ছড়াল পুরুলিয়ায় বিরল প্রাণী হদিস পাওয়ার গুজব

বুম প্রথম যাচাই করে ভাইরাল ছবিটি একটি সিলিকন ভাস্কর্য। পুরুলিয়ার ডিএফও রামপ্রসাদ বদনা আতঙ্ক না ছড়াতে অনুরোধ করেছেন।

পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ের জঙ্গলে বিরল হিংস্র প্রাণীর দেখা মিলেছে, এই নিয়ে ফেসবুকে আতঙ্ক দানা বাঁধছে একটি ভুয়ো সিলিকন ভাস্কর্যকে ঘিরে। ওই ফেসবুক পোস্টে একটি বিরল প্রাণীর ছবির সঙ্গে শোয়ার করা হচ্ছে কিছু আঁচড়ের দাগ থাকা ব্যক্তিদের ছবি। বুম এই ছবিগুলিকে আগেই খণ্ডন করেছে।

পুরুলিয়ার ডিভিশনাল ফরেস্ট অফিসার রামপ্রসাদ বদনার সঙ্গে এব্যাপারে যোগাযোগ করলে তিনি বুমকে জানান, "হায়না আক্রমণের ঘটনাটি এক মাস আগের। জঙ্গলের ভেতর বাছুরকে আক্রমণ করে হায়নাটি। তাকে বাঁচাতে গিয়ে হাতে অল্প একটু আঁচড় লাগে ওই ব্যক্তির। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া হিংস্র প্রাণীর সাম্প্রতিক আক্রমণের ঘটনাটি মিথ্যে।"

সংবাদ২৪ অনলাইন অবশ্য দাবি করে জখম হয়েছে দু'জন

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টে একটি তিনটি আঙুল যুক্ত চার পায়ের প্রাণীর ছবি ও সম্পর্কহীন আহত হওয়া দুই ব্যক্তির ছবি শেয়ার করা হচ্ছে। ছবিটি শেয়ার করে ফেসবুকে ক্যাপশন লেখা হয়, ''গতকাল অযোধ্যা পাহাড়ের জঙ্গলে এই বিরল জন্তুটি দেখা যায়।পুরুলিয়ার দিকের বন্ধুরা বিস্তারিত কিছু বলতে পারেন।''

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

প্রতিবেদনে বিভ্রান্তিকর শিরোনাম

বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিষয়টি নিয়ে ক্লিকবেইট ও বিভ্রান্তিকর শিরোনাম লেখা হয়। ক্লিকবেইট হল চটকদার শিরোনামের মাধ্যমে পাঠককে ওই প্রতিবদন পড়তে প্রলুব্ধ করা। যেমন সংবাদ২৪অনলাইন বিষয়টি নিয়ে শিরোনাম লেখে, "পুরুলিয়ার জঙ্গলে দেখা মিলল 'মানুষরুপী জন্তুর', ছবি প্রকাশ্যে আসতেই তুমুল হইচই নেটদুনিয়ায়।" দ্য টাইমস অফ কলকাতা শিরোনাম লেখে "পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ে দেখা মিলল বিরল প্রাণীর? জেনে নিন বিস্তারিত!"

নিউজ ট্রিপ শিরোনাম লেখে "দেখা মিলল 'মানুষরূপী জন্তু', ভাইরাল ছবি ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে।" সংবাদ সফর শিরোনাম লেখে, "অযোধ্যা পাহাড়ে দেখা গেল মানুষরূপী জন্তু, ভাইরাল ছবি, তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া" এই ধরণের প্রতিবেদনের প্রত্যেকটিতেই এটি একটি শিল্পকর্ম উল্লেখ করা হলেও সংবাদের শুরুতে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে। অনেক পাঠক বিভ্রান্ত হয়েছেন। কেউ কেউ সত্যি মনে করেছেন প্রতিবেদনের সবটা না পড়েই।

বিভ্রান্তিকর ক্লিকবেইট শিরোনাম।

বুম গত সপ্তাহে এই ছবিটির প্রথম তথ্য যাচাই করে। ওই সময় থেকেই ছবিটির সঙ্গে গুজরাত-রাজস্থান সীমান্তে চিতা বাঘ আক্রমণের ঘটনায় আহত ব্যক্তির ছবি এবং ২০১৮ সালে বিহারের গোপালগঞ্জে এক যুবকের ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রমণের শিকার হওয়া এক তরুনীর ছবি শেয়ার করা হয়েছিল।

ভাইরাল হওয়া কাল্পনিক প্রাণীর ছবিটি আসলে ইতালির এক পরাবাস্তব সিলিকন ভাস্কর্য শিল্পী লাইরা মাগানুকোর সৃষ্টি। ২০১৮ সালের ৩ অক্টোবর ফেসবুকে ওই সিলিকল ভাস্কর্যের ছবি আপলোড করেছিলেন লাইরা মাগানুকো।

হায়নার আক্রমণের শিকার হওয়া ব্যক্তি প্রসঙ্গে রামপ্রসাদ বদনা বলেল, ''প্রাধমিক চিকিৎসা করে ওই ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হয়। খুবই সামান্য ঘটনা এটি।"

লোকজন যেন ভুয়ো খবরে আতঙ্কিত না হন আবেদন করেন রামপ্রসাদ বদনা।

পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়েের বিরল প্রাণী আদতে একটি সিলিকন ভাস্কর্য এব্যাপারে বুমের বিস্তারিত তথ্য যাচাই পড়া যাবে এখানে

আরও পড়ুন: বি আর অম্বেদকর ও তাঁর স্ত্রীর ছবি লাগানো বাসটি ভুয়ো

Updated On: 2020-10-12T18:00:31+05:30
Claim Review :   পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ের জঙ্গলে হদিস বিরল জন্তুর
Claimed By :  Facebooks Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story