ভিডিও গেমের ফুটেজ শেয়ার করে দাবি করা হল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করে দিচ্ছে

জনপ্রিয় কম্পিউটার গেম আর্মা ৩ এর উপর ভিত্তি করে তৈরি ভিডিও গেম এডিটর এই ফুটেজটি তৈরি করেছে।

একটি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র-বিধ্বংসী কামান ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র গুলি করে উড়িয়ে দিচ্ছে বলে ভুয়ো দাবি করা হচ্ছে। এই ভাইরাল হওয়া ক্লিপটি একটি প্রচলিত ভিডিও গেম থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে।

২ মিনিট ৫০ সেকেন্ড দীর্ঘ এই ক্লিপটি আর্মা-৩ নামকএকটি জনপ্রিয় আধুনিক সামরিক গেম-এর অংশ থেকে নেওয়া। ২০১৩ সালে মাইক্রোসফ্ট উইন্ডোজ-এর জন্য বোহেমিয়া ইন্টার‍্যাক্টিভ সংস্থা এটি বাজারে ছেড়েছিল।

ভিডিওটির ক্যাপশন হলো, "এই কারণেই ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র ইরাকে মার্কিন ঘাঁটির কোনও ক্ষতি করতে পারেনি। এগুলি মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র-ধ্বংসী কামানl অবিশ্বাস্য ক্ষমতা এদের!"

একই ক্যাপশন সহ ভিডিওটি ফেসবুক এবং টুইটারে ভাইরাল হয়েছে।


ইরান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সামরিক উত্তেজনার প্রেক্ষিতেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। মধ্য প্রাচ্যে এই দুই দেশই পরস্পরের বিরুদ্ধে 'রণং দেহি' মনোভাব নিয়ে চলেছে। সম্প্রতি ৩ জানুয়ারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষস্থানীয় ইরানি সামরিক কমান্ডার কাসিম সোলেমানিকে নিহত করায় এই উত্তেজনার পারদ আরও চড়েছে। এর পাল্টা জবাবে ইরানও, ইরাকে অবস্থিত দুটি মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়।

১ কোটি ৯০ লক্ষ বার দেখা হয়ে গেছে, এমন একটি ফেসবুক পোস্টে ভিডিওটিকে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র-প্রতিরোধী ব্যবস্থা সেঞ্চুরিয়ন সি-রাম বলে শেয়ার করা হয়েছে।


তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটিকে মূল কয়েকটি ফ্রেমে ভেঙে নিয়ে সেগুলি অনুসন্ধান করে দেখেছে। এটি ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল, যার বর্ণনা পড়ে মনে হয়, এটি আর্মা-৩ নামের জনপ্রিয় ভিডিও গেম থেকে তুলে নিজের মতো করে সাজানো হয়েছে।

বুম এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পেরেছে যে, এটি আসল ভিডিও গেম-এর অংশবিশেষ নয়, বরং যারা এই গেমটি খেলে, তাদেরই একজনের নিজের মতো করে সাজানো একটি গেম।

আসল গেমটি যেন ২০৩০ সালে খেলা হচ্ছে, যাতে কর্পোরাল বেন কেরি নামে এক কাল্পনিক মার্কিন চরিত্র অনেকগুলি সামরিক বিকল্পের মধ্যে যে-কোনও একটি বেছে নিয়ে তার অভিযান চালাতে পারে।

এএফপি-র তথ্য-যাচাই ইতিপূর্বেই এই ভিডিওটির পর্দাফাঁস করেছে। গেমটি যারা তৈরি করেছে, সেই বোহেমিয়া ইন্টার‍্যাক্টিভ এএফপি-কে জানিয়েছে যে, ভিডিওর স্থিরচিত্র তাদের গেম থেকেই নেওয়া, যেটা কোনও একজন খেলোয়াড় কিছু প্রযুক্তির সাহায্যে নিজের মতো করে বানিয়েছে, যা মূল গেমটিতে ছিল না। তাই ইউটিউবে যারা গেমটি খেলে, তারা ঠিক কোথায় ঘটনাটি ঘটছে, সেটা ঠাহর করতে পারেনি।

"আমরা নিশ্চিত যে ইউটিউবের ভিডিওটি আমাদের আর্মা-৩ গেম থেকেই নেওয়া হয়েছে এবং আমাদেরই কোনও গেমার এটা বানিয়েছে। উল্লেখ্য যে, আর্মা-৩-র সব গেমই গেমাররা নিজেরাই ইচ্ছামতো রদবদল করতে পারে এবং ঘটনাস্থলও পাল্টে দিতে পারে। এই ভিডিওটিতে আপনারা যেটা দেখছেন, সেটা হুবহু আর্মা-৩-এর ভিডিও গেম নয়, গেমারদের পাল্টানো, রদবদল, পরিমার্জন করে নেওয়া একটি সংস্করণ।"
বোহেমিয়া ইন্টার‍্যাক্টিভের এএফপি তথ্যযাচাইকে দেওয়া বক্তব্য

বুম-ও বোহেমিয়া ইন্টার‍্যাক্টিভ-এর সঙ্গে আলাদা ভাবে যোগাযোগ করেছে এবং এ ব্যাপারে তাদের কোনও স্বতন্ত্র বক্তব্য পাওয়া গেলেই এই প্রতিবেদনটিকে সংস্করণ করা হবে।

Claim Review :  ভিডিও দেখায় আমেরিকা ইরানের মিসাইলকে নামিয়েছে
Claimed By :  Facebook
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story