মন্দিরে লকডাউন তদারকি করায় আক্রান্ত পুলিশ, ভাইরাল হল ওয়েবসিরিজের ক্লিপ

বুম দেখে ভিডিওটি একটি ওয়েবসিরিজ থেকে নেওয়া। ইউটিউবে ২০১৯ সালে আপলোড করা হয়েছিল ভিডিওটি।

একটি মন্দিরের মধ্যে একজন পুলিশকে কিছু মানুষ ঘিরে ধরে মারছে একটি ওয়েবসিরিজ দৃশ্যের এরকম একটি কাল্পনিক মুহূর্তের ভিডিওকে সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, এটি সত্যি ঘটনা যেখানে মন্দিরে লকডাউন অমান্য তদারকি করতে গিয়ে মার খেতে হচ্ছে একজন পুলিশকে। বুম দেখে ওয়েবসিরিজটি ২০১৯-এ ইউটিউবে আপলোড করা হয় এবং ভারতজুড়ে চলা লকডাউনের সঙ্গে এই দৃশ্যের কোনও সম্পর্ক নেই।

ভাইরাল পোস্টের ভিডিওটি ৪৪ সেকেন্ডের। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, উর্দিধারি একজন কর্তব্যরত পুলিশকর্মীকে ঘিরে ধরে লাঠির দিয়ে আঘাত করা হয়। লাঠির আঘাতে মাটিতে পরে যাওয়ার পর সেই পুলিশকর্মীকে লাথি মারতে থাকে একদল লোক।

এরকমই একটি ভাইরাল পোস্টে ক্লিপটির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে হিন্দিতে বলা হয়েছে, "মন্দিরে আইনকে প্রহার করা হচ্ছে, লকডাউনের নিয়ম লঙ্ঘনে বাঁধা দেওয়ায় মারা হল পুলিশকে।"


পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে ভাইরাল

একই ক্যাপশন দিয়ে বুম ফেসবুকে সার্চ করে এবং দেখতে পায় মিথ্যে বর্ণনা সহ পোস্টটি ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে।


টুইটারেও ভাইরাল


টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

প্রথম দফার ২১ দিনের লকডাউন চলাকালীন পুলিশ কর্মীদের উপর সংগঠিত হওয়া বিক্ষিপ্ত আক্রমনের প্রেক্ষাপটে ভাইরাল হয় আলোচ্য ভিডিওটি।

আরও পডুন: লকডাউন ভাঙায় পূজারীর বিরুদ্ধে রেওয়া পুলিশের পদক্ষেপে লাগলো সাম্প্রদায়িক রঙ

তথ্য যাচাই

ইন্টারনেটে খুঁজে একটি টুইটের মধ্যে বুম একটি মন্তব্য দেখতে পায়, যেখানে এই ভিডিওকে একটি ওয়েবসিরিজের অংশ বলে দাবি করা হয় এবং একটি ইউটিউব লিঙ্ক জুড়ে দেওয়া হয়। বুম ইউটিউব লিঙ্কের সূত্রে জানতে পারে এই ভিডিওটি ১৮ জুন ২০১৯ তারিখে আপলোড করা হয়েছিল। ভিডিওটি ২ মিনিট ৪৩ সেকেন্ডের একটি ওয়েবসিরিজের অংশ।

মূল ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছিল সিডাব্লই (কন্টিনেন্টাল রেসলিং এন্টারটেনমেন্ট) নামের একটিব ইউটিউব চ্যানেলে। চ্যানেলটি রেসলিং, কুস্তি সংক্রান্ত বিনোদন সংক্রান্ত ভিডিও দেখায় এবং চ্যানেলটি ভারতের কুস্তিগির এবং ডাব্লুডাব্লুই সুপারস্টার গ্রেট খালি'র স্থাপন করা।

আসল ভিডিওটি 'সিংঘাম দুবে শাস্ত্রীর পুজোয় ব্যাঘাত ঘটায়' এই শিরোনামে আপলোড করা হয়। সিংঘাম দুবে হলেন নাটকের সেই কাল্পনিক পুলিশ অফিসার যাঁকে মারা হচ্ছে।


আসল ভিডিওর লড়াইয়ের দৃশ্য দেখলেই ধারণা করা যায় যে লড়াই গুলো নির্দেশিত এবং অভিনয় করা। আবার ভিডিওটির শেষের দৃশ্যে গ্রেট খালির ছবি সমেত ইউটিউব চ্যানেলের একটি লোগো ভেসে ওঠে, যেখানে লেখা 'সিডাব্লিউ ব্রেকডাউন শো'। ভিডিও দেখে নিশ্চিত হওয়া যায় ভিডিওর গল্পটা কাল্পনিক এবং অভিনীত।


সিডাব্লুই চ্যানেলে আপলোড করা অন্যান্য কিছু ভিডিওগুলি বুম দেখে। তেমনই একটি ভিডিও দেওয়া হল নীচে। এখানে ওই একই অভিনেতাদের দেখা যায়, যাঁরা ভাইরাল ক্লিপে একজন পূজারী ও পুলিশ কর্মী সিংঘাল দুবে হিসেবে অভিনয় করেছিলেন।

আরও পড়ুন: কানপুরে পুলিশকে যুবকের লাথি মারার ছবিকে পশ্চিমবঙ্গের ঘটনা বলা হল

Updated On: 2020-04-19T17:49:17+05:30
Claim Review :   ভিডিওতে দেখায় মন্দিরের মধ্যে লকডাউনের তদারকিতে গিয়ে প্রহৃত হচ্ছেন পুলিশকর্মী
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story