কোভিড সারাতে শুকনো আদা? তেমন কোনও প্রমাণ নেই

বুম দেখে ভিডিওর ব্যক্তিকে ভুল করে কোথাও ডঃ সুশীল রাজদান অথবা ডাঃ জরীর উদওয়াদিয়া বলে দাবি করা হচ্ছে।

একটি ভিডিওতে এক ব্যক্তি দাবি করেছেন যে, শুকনো আদার (Ginger) গন্ধ ওমিক্রন (Omicron) নামক কোভিডের নতুন ভেরিয়েন্টকে মেরে ফেলতে পারে। ভিডিওটি কোভিড-১৯'এর (Covid-19) তৃতীয় প্রবাহের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। আলাদা আলাদা ভাইরাল মেসেজে নেটিজেনরা ওই ব্যক্তিকে জম্মু ও কাশ্মীরের স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ সুশীল রাজদান বা ডাঃ জরীর উদওয়াদিয়া বলে ভুল করেছেন।

বুম ড রাজদান এবং ড উদওয়াদিয়া দুজনের সঙ্গেই যোগাযোগ করে। তাঁরা দুজনেই জানিয়ে দেন যে, ভিডিওতে তাঁদের দেখা যাচ্ছে না। যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে, তিনি অন্য কেউ। আদার গুঁড়োর যে ওষুধের কথা বলা হয়েছে তা তাঁদের নিজেদের বক্তব্য নয় বলেও তাঁরা জানিয়ে দেন।

ভিডিওটি হোয়্যাটসঅ্যাপে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে ওই অপিরিচিত ব্যাক্তি দাবি করেছেন আদার গুঁড়োর গন্ধ শুকলে নাকের মধ্যে থাকা মিউকাস এবং ইনফেকশন নষ্ট হয়ে যাবে। তাঁকে বলতে শোনা গেছে, "এর বিজ্ঞানসম্মত কারণ রয়েছে। শুকনো আদা অত্যন্ত আলকেলাইন, এবং এর পিএইচ ভ্যালু চড়া। ফলে এটি শোকার সঙ্গে সঙ্গে ভিতরে যে সব মিউকাস এবং ইনফেকশন আছে, যেগুলির পিএইচ ভ্যালু খুব কম, সেগুলি নষ্ট হয়ে যায়। আপনারা জানেন যে, কোভিড এবং অন্যান্য ভাইরাস আমাদের নাক দিয়ে মিউকাস এবং তার পর গলা ও আমাদের ফুসফুসে প্রবেশ করে। যেহেতু নাক দিয়েই এগুলি আমাদের শরীরে ঢোকে, তাই আমরা যদি নাকের যত্ন নিই আমরা একেবারে ঠিক থাকতে পারব। সুতরাং দয়া করে জনস্বার্থে এই মেসেজটি ছড়িয়ে দিন যাতে অনেকেই এ থেকে উপকার পেতে পারেন।"

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়েছে সঙ্গে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, "হোয়্যাটসঅ্যাপের মাধ্যমে দেশের সবচেয়ে সম্মানিত চেস্ট স্পেশালিস্ট ডাঃড জরীর উদওয়াদিয়ার প্রেজেন্টেশনের সারাংশ শেয়ার করছি।" অনেকগুলি মেসেজে ভুল করে ওই ব্যক্তিকে ডাঃ সুশীল রাজদান বলেও পরিচয় দেওয়া হয়েছে। "ডাঃ সুশীল রাজদান ভারতের এক জন বিখ্যাত স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ। তিনি কোভিডের বিরুদ্ধে আয়ুর্বেদিক পদ্ধতির পরামর্শ দিচ্ছেন।"

পোস্টটির আর্কাইভ দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

ফেসবুকে একটি পোস্টে এই একই ভিডিও আপলোড করা হয়েছে, সঙ্গে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, "জম্মুর ডাঃ সুশীল রাজদান একজন বিখ্যাত স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ। আদার গঁড়ো ব্যবহার করে কিভাবে ওমিক্রন এড়িয়ে যাওয়া যায়।"

পোস্টটি দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তরপ্রদেশের বিদ্যুৎ মাশুলের তুলনা গ্রাফিক বিভ্রান্তিকর

তথ্য যাচাই

বুম ডাঃ জরীর উদওয়াদিয়ার নাম দিয়ে কিওয়ার্ড সার্চ করে এবং টিবি-রিপোর্ট ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি ওয়েবসাইটে তাঁর ছবি দেখতে পায়। এরপর আমরা উদওয়াদিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করি এবং তিনি নিশ্চিত ভাবে জানান যে, ভিডিওতে যে ছবি দেখা যাচ্ছে সেটি তাঁর নয়। ওমিক্রনের উপর দেওয়া তাঁর আসল বক্তৃতার একটি লিঙ্ক তিনি আমাদের দেন। ওই ভিডিওতে উদওয়াদিয়া আদার গুঁড়োর ঘ্রাণ নেওয়া কোভিডের চিকিৎসা বলে কোথাও উল্লেখ করেননি।

কোভিড-১৯'এর ওমিক্রন ভেরিয়েন্টের উপর ডাঃ জরীর উদওয়াদিয়ার ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে।

এরপর বুম ভিডিওটির ব্যাপারে কথা বলার জন্য ডাঃ সুশীল রাজদানের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তিনি জানিয়ে দেন যে, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি বা তাতে যে চিকিৎসার কথা বলা হয়েছে তার সঙ্গে তাঁর নিজের কোনও সম্পর্ক নেই। ভাইরাল হওয়া মেসেজটি এবং তাতে যে ব্যাক্তিকে দেখানো হয়েছে, সে সম্পর্কে ডাঃ রাজদানের মন্তব্যের ভিডিও নীচে দেখা যাবে।

তবে ভিডিওটিতে যে ব্যাক্তিকে দেখা যাচ্ছে, বুম নিজে থেকে তার পরিচয় যাচাই করতে পারেনি। এছাড়া আমরা মুম্বই সাইবার সেলের ডিসিপি ড রশ্মি কারান্ডিকরের সঙ্গে যোগাযোগ করি। তিনি বলেন, "এটি একটি ভুয়ো ভিডিও, এবং এটি গুজব ছড়াচ্ছে। আমরা ইতিমধ্যে হোয়্যাটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষকে চিঠি লিখেছি যাতে তাঁরা তাঁদের প্ল্যাটফর্ম থেকে ভিডিওটি সরিয়ে নেন।"

আদার গন্ধ নিলে কি সত্যিই কোভিড-১৯ সেরে যাবে?

আমরা গুগলে এব্যাপারে কিওয়ার্ড সার্চ করি এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক্সিকিউটিভ বোর্ড প্রেসিডেন্ট ডাঃ প্যাট্রিক আমথের পোস্ট করা একটি টুইট দেখতে পাই। টুইটটি ২০২০ সালের ৮ আগস্ট পোস্ট করা হয়েছিল।

দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমিকস অব সায়েন্স, ইঞ্জিনীয়ারিং এবং মেডিসিনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, "আদার মূল খেয়ে, আদা চা খেয়ে, আদার ক্যাপ্সুল খেয়ে বা আদার গন্ধ নিয়ে কিংবা খাবারে দিয়ে যেভাবেই হোক না কেন, আদাকে অস্ত্র করে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ করা বা ঠেকিয়ে রাখা সম্ভব না। ভাইরাস আপনার শরীরের কোষে প্রবেশ করে এবং নিজের কপি তৈরির মাধ্যমে সংখ্যা বৃদ্ধি করে। তারপর ওই কপিগুলি আবার নতুন কোষে প্রবেশ করে এবং একই পদ্ধতির পুনরাবৃত্তি করে— এই ভাবে শরীরে ভাইরাল ইনফেকশন ছড়িয়ে পড়ে। আদা আপনার শরীরের ভাইরাসগুলিকে ধ্বংস করতে পারে না। তাদের কপি করার পদ্ধতিও আটকাতে পারে না। আদা বা অন্য কোনও খাবার জিনিস সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আপনার শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা 'বুস্ট' বা 'সুপারচার্জ' করতে পারে না। কোনও খাবার, পানীয় বা সাপ্লিমেন্ট আপনাকে কোভিড-১৯'এর হাত থেকে রক্ষা করতে পারে না।"

আরও পড়ুন: ভুয়ো দাবিতে ছড়াল সচিন তেন্ডুলকরের শেষকৃত্যে অংশ নেওয়ার পুরনো ছবি

Updated On: 2022-01-14T19:46:26+05:30
Claim :   ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ডাঃ জরীর উদওয়াদিয়া বলছেন আদা কোভিড-১৯ এর নিরাময়
Claimed By :  Social Media Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.