মাও হানায় ৭৬ সেনা মৃত্যুতে কানহাইয়া কুমার ও অন্যদের এটি উল্লাসের ছবি?

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি ২০১৬ সালের ১০ সেপ্টেম্বর জেএনইউ ছাত্রসংসদ নির্বাচনে জয়ের পর তোলা হয়। ৭৬ সেনা মারা যায় ২০১০ সালে।

জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র কানহাইয়া কুমার (Kanhaiya Kumar), উমর খালিদ (Umar Khalid) ও অন্যান্যদের উল্লাসের মুহূর্তে দেখা যাচ্ছে এরকম একটি ছবি সোশাল মিডিয়ায় মিথ্যে দাবি সহ ভাইরাল হয়েছে যে দন্তেওয়াড়াতে (Dantewada) মাওবাদী হানায় (maoist attack) ৭৬ জওয়ানের মৃত্যুর পর উল্লাস করেছিল ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা।

বুম দেখে কানহাইয়া ও খালিদের এই ভাইরাল ছবিটি ২০১৬ সালের যখন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রসংসদের নির্বাচনে এসএফআই ও আইসা জয়ী হয়েছিল।

ছবিটি বর্তমানে আবারও ছত্তীসগড়ের বস্তার অঞ্চলে মাওবাদী হামলায় জওয়ানদের মৃত্যুর পরিপ্রেক্ষিতে ভাইরাল হয়েছে। ৩ এপ্রিল ২০২০ সুকমা ও বিজাপুর জেলার বস্তার অঞ্চলে যৌথভাবে নিরাপত্তাবাহিনী অপারেশন চালানোর সময় মাওবাদীদের পাতা বোমার ফাঁদে প্রাণ যায় ২২ জন জওয়ানের। আহত হয় ৩২ জন। বিজাপুরে মাওবাদী এনকাউন্টার চলার সময় সিআরপিএফ জওয়ান রাকেশ্বর মানহাসকে মাওবাদীরা তুলে নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার তাঁকে মাওবাদীদের থেকে উদ্ধার করা গেছে বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

২০১০ সালের এপ্রিল মাসে ছত্তীসগড়ের দান্তেওয়াড়াতে ৭৬ জন সিআরপিএফ জওয়ান মারা গিয়েছিল মাওবাদীদের পাতা বোমা বিস্ফোরণে। কয়েক দশকের মধ্যে ওই মাওবাদী হানায় প্রাণহানি হয় সবচেয়ে বেশি। সে সময় যৌথ বাহিনীর একটি দল মাওবাদী দমনে অভিযান চালাচ্ছিল।

আরও পড়ুন: ২০১৩ ছত্তীসগঢ় মাওবাদী হানা ছড়াল সম্প্রতি সুকমায় নিহত জওয়ানের দেহ বলে

ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে কানহাইয়া কুমার, উমর খালিদ ও অন্যান্যদের উল্লাসের মুহূর্তে দেখা যায়। গ্রাফিক ছবিটিতে লেখা হয়েছে, "কি করে ভুলতে পারো যখন ছত্তিশগড় ৭৬ জন জওয়ান শহীদ হয়েছিল তখন এই JNU তে আনন্দ করা হয়েছিল।"

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

২০২০ সালের ৫ জানুয়ারি জেএনইউ-এ মুখোশধারী গুন্ডা হামলার পর ভুয়ো দাবিতে ভাইরাল হওয়া একাধিক ছবিও ভিডিওর সঙ্গেও এই ছবিটিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

আরও পড়ুন: ২০১৯ সালের বামফ্রন্টের ব্রিগেড জনসভার ছবি বিজেপির জনসভা বলে জিইয়ে উঠল

তথ্য যাচাই

বুম ছবিটির রিভার্স সার্চ করে এবং দেখে ছবিটি ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তোলা। আউটলুকে ছবিটি প্রকাশিত হয়েছিল দন্তেওয়াড়াতে মাওবাদী হামলার প্রায় ৬ বছর পরে

ভাইরাল হওয়া ছবিটি তোলেন সঞ্জয় রাউত সে সময় তিনি আউটলুকে কর্মরত ছিলেন। ছবিটির ক্যাপশন লেখা হয়, "জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভাপতি কানহাইয়া কুমার উমর খালিদ ও অনির্বান ভট্টাচার্যের সঙ্গে আইসা ও এসএফআই-এর জেএনইউ এর ভোটে জয় পাওয়ার উল্লাস উৎযাপন করার সময়, নতুন দিল্লিতে ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৬।"

বুম রাউতের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ছবিটি দেখা যাবে এখানে

২০১৭ সালে ভুয়ো ছবি সহ রিপোর্টের জন্য মামলা

২০১৭ সালের ২৭ এপ্রিল বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডে প্রকাশিত প্রতিবেদনঅনুযায়ী, জওহরলাল নেহরু বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ সৃষ্টিনিউজ ও দৈনিক ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে সুকমা হানা নিয়ে ছাত্ররা উল্লাস করেছে এই দাবিতে প্রতিবেদন প্রকাশ করলে। তৎকালীন জওহরলাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সভাপতি মোহিত কুমার পান্ডে বলেন, "সৃষ্টিনিউজ ও দৈনিকভারত প্রতিবেদন ছড়াচ্ছে যে জেএনইউ ছাত্রছাত্রীরা সুকমা হানাকে বাহবা দিচ্ছে।" ওয়েবসাইট দুটি সম্পর্কহীন ছবি ছেপেছে ওই ভুয়ো দাবির স্বপক্ষে।

আরও পড়ুন: ভিন্ন মানে সহ ছড়াল ইভিএম নিয়ে নরেন্দ্র মোদীর কথার সংবাদপত্র ক্লিপিং

Updated On: 2021-04-08T20:03:46+05:30
Claim Review :   ছত্তীসগড়ে ৭৬ জন জওয়ান শহীদ হয়েছিল তখন JNU তে কানহাইয়া কুমার আনন্দ করেছিল
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story