পাঞ্জাবে এক ধর্মীয় মেলায় মদ বিতরণের ভিডিও কৃষক বিক্ষোভের সঙ্গে জুড়ল

বুম দেখে ভাইরাল ভিডিওগুলি পাঞ্জাবের লুধিয়ানায় কঁওকে কালান গ্রামে বাবা রাদু শাহ'র মেলায় তোলা।

পাঞ্জাবের (Punjab) লুধিয়ানা জেলায়, একটি ধর্মীয় মেলায় তোলা দু'টি ভিডিওর একটি সেট, এই মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে যে, বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী কৃষকদের (farmers protest) মধ্যে মদ (alcohol) বিতরণ করা হচ্ছে।

প্রথম ভিডিওটিতে কয়েকটি যুবককে মদের বোতল থেকে একটি নীল ড্রামে মদ ঢালতে ও মোবাইল ফোনে তা রেকর্ড করতে দেখা যাচ্ছে। দ্বিতীয় ভিডিওটিতে, জমায়েত-হওয়া ব্যক্তিদের গ্লাসে ওই ড্রাম থেকে মদ ঢেলে দেওয়া হচ্ছে।

বুম নিশ্চিত হয় যে, ওই দু'টি ভিডিও পঞ্জাবের লুধিয়ানায় অনুষ্ঠিত বাবা রোদু শাহ'র মেলায় তোলা হয়। কৃষকদের মহাপঞ্চায়েতের সঙ্গে সেগুলির কোনও সম্পর্ক নেই, যদিও তেমনটাই দাবি করা হচ্ছে। ওই ঘটনার অন্যান্য ভিডিওর সঙ্গে মেলালে প্রমাণ হয় যে, ভাইরাল ভিডিওগুলিতে যে যুবকদের দেখা যাচ্ছে, তাঁরা ওই মেলায় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার-করা ভিডিওগুলির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "কৃষক মহাপঞ্চায়েতের সত্য। এই জালিয়াতদের চেয়ে হাইজেনবার্গের অনিশ্চয়তা অনেক বেশি নিশ্চিত।"


টুইটটি দেখার জন্য ক্লিক করুন এখানে


টুইটটি দেখার জন্য ক্লিক করুন এখানে

টুইটার ব্যবহারকারী ঋষি বাগ্রিও ওই ভিডিওর সেটটি শেয়ার করেন। টুইটারে বাগ্রির করা মিথ্যে দাবি বুম আগেও খণ্ডন করেছিল।


তথ্য যাচাই

বুম দেখে, দু'টি ভিডিওর মধ্যে কোনওটাই চলতি কৃষক বিক্ষোভের নয়। সে দু'টি হল, পাঞ্জাবের লুধিয়ানায় কঁওকে কালান গ্রামে অনুষ্ঠিত একটি ধর্মীয় মেলার ভিডিও। সেখানে বাবা রোদু শাহ'র নামে মদ উৎসর্গ করা হয় এবং বিতরণ করা হয় ভক্তদের মধ্যে।

ভিডিও : গ্লাস-হাতে মানুষের মধ্যে মদ বিতরণ

স্বাধীন সাংবাদিক সন্দীপ সিংহ'র একটিপ্রতিবেদন আমরা দেখতে পাই। কঁওকে কালান (Kanuke Kalan) গ্রামে বাবা শাহ'র দরগায় গিয়ে লোকজনের সঙ্গে কথা বলে ছিলেন তিনি। সিংহ আমাদের নিশ্চিত করে বলেন যে, ৬ সেপ্টেম্বর, ওই দরগার সামনে, বাবা রোদু শাহ'র ভক্তরা এক ধর্মীয় মেলায় যোগ দেন। আর তখনই ভিডিওটি তোলা হয়।

ভাইরাল ভিডিওতে যে ট্রাকটিকে দরগার কাছে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে, সিহং'র লেখাতেও সেটির ছবি দেখা যায়। ভাইরাল ভিডিওটিতে যে সবুজ গেটের কাছে লোকজনকে সমবেত হতে দেখা যায়, সেই গেটটি প্রতিবেদনটিতেও রয়েছে।

আমরা সিংহ'র সঙ্গে যোগাযোগ করলে, উনি বলেন যে, স্থানীয় মানুষের সঙ্গে কথা বলে উনি নিশ্চিত হয়েছেন যে, ভিডিওটি ওই ধর্মীয় মেলায় তোলা হয়। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁকে আরও বলেন যে, কয়েক দশক ধরে, প্রতি বছর, মেলাটি আয়োজিত হয়ে আসছে। এবং বাবা রোদু শাহ'র ভক্তরা সেখানে সমবেত হন।

ভাইরাল ভিডিওটির দৃশ্যগুলির সঙ্গে প্রতিবেদনের ছবিগুলি তুলনা করলে দেখা যায়, সেগুলি মিলে যাচ্ছে।


ভিডিও : অল্পবয়সীরা বোতোল থেকে একটি নীল ড্রামে মদ ঢালছে

ভিডিওটি কঁওকে কালান গ্রামে তোলা, এই তথ্যকে সূত্র ধরে আমরা পাঞ্জাবি কি-ওয়ার্ড 'বাবা রোদু শাহ কঁওকে কালান+অ্যালকহল+দারু' দিয়ে ফেসবুক ও ইউটিউবে সার্চ করি।

সার্চের ফলাফল হিসেবে, বাবা রোদু শাহ'র মেলার আরও ভিডিও আমাদের সামনে আসে। তাতেও (২ সেকেন্ড থেকে ২.৩২ মিনিট সময়চিহ্নের মধ্যে) বোতোল থেকে একটি নীল ড্রামের মধ্যে মদ ঢালতে দেখা যায়।

ক্যাপশনে বলা হয়, "কঁওকে কালান গ্রামে বাবা রোদু শাহ জি'র মেলায় মদের লঙ্গর খোলা হয়েছে।"

ফেসবুক পেজ 'জনশক্তি নিউজ পঞ্জাব' ওই ভিডিওগুলি সম্পর্কে একটি পোস্ট করে। তাতে বলা হয়, বাবা রোদু মেলার ভিডিও কৃষক বিক্ষোভ সমাবেশে তোলা, এই মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে। সেটির মতামতের জায়গায়, একজন ব্যবহারকারী ওই মেলার আরও কিছু ভিডিও পোস্ট করেন। ভাইরাল ভিডিওগুলিতে আমরা যে গান শুনতে পাই ও যে ব্যক্তিদের দেখতে পাই, ওই ভিডিওগুলিতেও সেই একই গান শোনা ও একই মানুষজনকে দেখা যায়।

আমরা শুনতে পাই পেছনে একই পাঞ্জাবি গান বাজছে। দুই ভিডিওতেই একই ছেলেকে মেলার একটি স্টলের পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এর থেকে প্রমাণ হয় যে, ভাইরাল ভিডিও ও ফেসবুকে পোস্ট করা ভিডিওগুলি একই জায়গায় তোলা।

একই বেগুনি তাঁবু দেখা যায় ভিডিওগুলিতে। ৮ সেকেন্ড সময়চিহ্নে, সাদা কলারওয়ালা টি-শার্ট-পরা একটি ছেলেকে একটি স্টলের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় ফেসবুকের ও ভাইরাল ভিডিওগুলিতে। যে ছেলেদের বোতোল থেকে ড্রামে মদ ঢালতে দেখা যায় ভাইরাল ভিডিওতে, তাদেরই একজনকে ফেসবুকে পোস্ট-করা ভিডিওতেও দেখা যায় ১৮ সেকেন্ড সময়চিহ্নে।

১৮ সেকেন্ডের সময়চিহ্নে, কমলা রঙের পাঞ্জাবি-পরা এক যুবককে দেখা যায় ভিডিওটিতে, যে ভাইরাল ভিডিওটিতেও আছে।


এছাড়া, একই স্টল দেখা যায় ভাইরাল ও পোস্ট-করা ভিডিওতে।


ফেসবুক পোস্টের মতামতের জায়গায় আরও একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছিল। তাতে একটি স্টল দেখা যায়। সেটির ব্যানারে চারটি মোবাইল ফোন নম্বর দেওয়া ছিল। বুম তার মধ্যে দুটি নম্বরে ফোন করে।

একটি নম্বর হল জগরূপ সিংহ'র। উনি বুমকে বলেন যে, ৬ সেপ্টেম্বের ২০২১, লুধিয়ানার কঁওকে কালান গ্রামে বাবা রোদু শাহ'র মেলায়, স্টলটি দেওয়া হয়।

জগরূপ বুমকে বলেন যে, ভাইরাল ভিডিওটি তাঁর পাশের স্টলটিতে তোলা। "ভাইরাল ভিডিওটি কঁওকে কালান'এ বাবা রোদুর শাহ'র মেলায় তোলা। যে লোকজনকে দেখা যাচ্ছে তাতে, তাঁরা ছিলেন আমার পাশের স্টলে। আমি তাঁদের ব্যক্তিগত ভাবে চিনি না। কিন্তু পাশের স্টলে উপস্থিত ছিলেন তাঁরা," সিংহ বুমকে বলেন। কৃষক ‍বিক্ষোভের সঙ্গে ভিডিওটির কোনও সম্পর্ক আছে কিনা জানতে চাওয়া হলে, সিংহ বলেন, "না, দিল্লিতে কৃষক বিক্ষোভের জায়গায় ওটা তোলা হয়নি।"

ইউটিউবে আমরা আরও একটি ভিডিও দেখতে পাই। সেটির শিরোনাম হল, 'জগরাঁও (লুধিয়ানা)। কঁওকে কালান'এ বাবা রোদু জি'র মেলা'। ৯ সেপ্টেম্বের, ২০২১ আপলোড করা হয় সেটি। ভাইরাল ভিডিওটিতে যে কমলা রঙের পাঞ্জাবি-পরা যুবককে দেখা যাচ্ছে, এই ভিডিওটিতেও তাঁকে দেখা যায়।


Updated On: 2021-09-20T19:07:33+05:30
Claim Review :   দিল্লির কৃষকদের প্রতিবাদে মদ দেওয়া হচ্ছে
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story