পঞ্জশিরে পাক-হানা বলে টিভি৯ ভারতবর্ষ ফের দেখাল আগের আর্মা-৩ ভিডিও গেম

সম্পাদিত আর্মা-৩ এর দৃশ্য টিভি৯ ভারতবর্ষ ২০২০ সালেও আর্মেনিয়া-আজারবাইজানের মধ্যে সামরিক সংঘর্ষের দৃশ্য বলে দেখিয়েছিল।

৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, উত্তরপূর্বের প্রদেশ পঞ্জশির তালিবান (Taliban) বাহিনী দখল করার খবর প্রকাশ হওয়ার পর হিন্দি খবরের চ্যানেল টিভি৯ ভারতবর্ষ (TV9 Bharatvarsh) ভিডিও গেম আর্মা-৩ (ARMA-3) থেকে নেওয়া একটি সম্পাদিত দৃশ্যকে আফগানিস্তানের পঞ্জশিরে (Panjshir) পাকিস্তানের ড্রোন (Pakistani drone) হানা বলে সম্প্রচার করল।

বুম দেখে, আর্মা-৩-এর মসম্পাদিত ভিডিওটিতে স্থল ও আকাশ থেকে আক্রমণের ছবি দেখানো হয়।

ওই একই দৃশ্য টিভি৯ ভারতবর্ষ ৯ অক্টোবর, ২০২০ সম্প্রচার করেছিল। আগের সম্প্রচারে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সামরিক সংর্ঘের দৃশ্য বলে একই দৃশ্য দেখানো হয়।

আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থাগুলি তালিবানের প্রধান মুখপাত্র জাবিবুল্লাহ মুজাহিদ-এর দাবি উদ্ধৃত করে জানায় যে, বিদ্রোহীদের উৎখাত করে, পুরো পঞ্জশির উপত্যকা তালিবানের দখলে এসে গেছে। কিন্তু ন্যাশনাল রেজিসটেন্স ফ্রন্ট'র (এনআরএফ) মুখপাত্র বলেন যে, তালিবানের জয়ের দাবি মিথ্যে। এবং আহমেদ মাসৌদের নেতৃত্বে, প্রতিরোধ বাহিনী তাদের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। খবরে আরও বলা হয় যে, পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী, বিশেষ করে সে দেশের বায়ু সেনা, পঞ্জশিরে এনআরএফ'র বিরুদ্ধে লড়াইয়ে, তালিবানকে সাহায্য করছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে, টিভি৯ ভারতবর্ষ আর্মা-৩-এর সম্পাদিত স্থল ও আকাশপথে আক্রমণের দৃশ্য সম্প্রচার করে। দাবি করা হয়, সেগুলি পাকিস্তানি বায়ু সেনার ড্রোন আক্রমণের দৃশ্য। সিনিয়র কার্যনির্বাহী সম্পাদক নিশান্ত চতুর্বেদীকে হিন্দিতে বলতে শোনা যায়, "পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী ও তালিবান একসঙ্গে কাজ করছে। তারা একই পয়সার এপিঠ আর ওপিঠ। সারা রাত, পাকিস্তানি বায়ু সেনার ও ড্রোনের আক্রমণ চলে পঞ্জশিরে।" তারপর ওই বিষয়ে বিতর্ক শুরু হলে, সেখানে ইতিমধ্যেই নস্যাৎ-করা কিছু ছবি দেখানো হয়। যেমন, যুক্তরাজ্যের ওয়েলস-এ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধবিমানের প্রশিক্ষণ ও আর্মা-৩-এর ভিডিও গেমের দৃশ্য। ৫ মিনিট ২৪ সেকেন্ড সময়ে চতুর্বেদী বলেন, "এই দৃশ্যগুলি দেখলে আপনারা স্তম্ভিত হবেন। পঞ্জশিরের যুদ্ধে পাকিস্তানের অংশগ্রহনের প্রমাণ। এটা বড় খবর। পঞ্জশিরের নরদার্ন অ্যালায়েন্সের ওপর পাকিস্তানের ড্রোন বোমা ফেলে..." ১০ মিনিট ২৫ সেকেন্ড ধরে ওই ছবিগুলি বারবার দেখানো হয়।

ওই বুলেটিনটি সহ টিভি-১৯ ভারবর্ষ'র টুইট দেখা যাবে এখানে। ভিডিওটি নিচে দেখুন

তাঁর অনুষ্ঠানে যে ছবিগুলি দেখানো হয়, চতুর্বেদী সেগুলি টুইট করেন। এবং ক্যাপশনে লেখেন, "ভেবে দেখুন! পুরো আফগান যুদ্ধ চলাকালে, পাকিস্তান তালিবানকে সাহায্য করেছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এর বিরুদ্ধে কোনও কথা বলেনি। তালিবানকে মদত দেওয়ার জন্য এফএটিএফ-এ পাকিস্তানকে কি মাশুল দিতে হবে।"

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

টিভি৯ ভারতবর্ষ'র 'প্রাইম টাইম ডিবেট'-এ, ৪ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট ২৪ পর্যন্ত ওই একই দৃশ্য দেখানো হয়। ফেসবুক লাইভের ভিডিওটি নিচে দেখুন।

আরও পড়ুন: ২০১৮ সালে মজদুর কিশান সংঘর্ষ র‍্যালির ছবিকে বলা হল দিল্লিতে কৃষকদের ঢল

তথ্য যাচাই

ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে দেখা যায়, অগস্ট ২০২০ থেকেই সেগুলি ইউটিউবে রয়েছে।

২২ অগস্ট ২০২০তে, 'এ-১০ ওয়ারথগ থান্ডারবোল্ট সিআরএএম' শীর্ষক ওই ভিডিওটি আপলোড করা হয়। সেটির বিবরণে বলা হয়, আর্মা-৩'র সঙ্গে যুক্ত সেটি। আর্মা-৩ হল বাস্তবের অনুকরণে তৈরি একটি ভিডিও গেম। এই খেলাটি বোহেমিয়া ইন্টারঅ্যাক্টিভ বাজারে আনে। খেলাটি ২০৩০-এর পটভূমি কল্পনা করে তৈরি। এবং তাতে এক কাল্পনিক মার্কিন করপোরাল বেন কেরিকে ব্যবহার করে, অত্যাধুনিক সব সামরিক অভিযান চালাতে পারেন ওই গেমের খেলোয়াড়রা।

টিভি৯ ভারতবর্ষ যে ভিডিওটি ব্যবহার করেছে, সেটি ওই গেমের খেলোয়াড়রা নিজেরাই বদলে নিয়েছিলেন। আসল গেমটিতে ওই ভিডিওটি নেই। যাঁরা খেলায় অংশ নেন, তাঁরা নিজেদেরে ইচ্ছে মতো ভিডিওটিতে বদল ঘটাতে পারেন। সেই পরিবর্তিত অংশগুলি, আসল ভিডিওতে থাকে না।

ইউটিউবে থাকা ভিডিওটির সময়চিহ্ন ১৩ সেকেন্ড ও ২০ সেকেন্ডের মধ্যে যে দৃশ্যগুলি দেখা যায়, সেগুলির সঙ্গে টিভি৯ ভারতবর্ষ সম্প্রচারিত দৃশ্যের সঙ্গে মিলে যায়। দু'টি ভিডিও তুলনা করা হল নিচে।

তালিবান আফগানিস্তান দখল করার পর থেকে, বুম একাধিক ভুল ও মিথ্যে খবর খণ্ডন করেছে। তথ্য-যাচাইগুলি নিচের থ্রেডে দেখতে পাবেন।

Updated On: 2021-09-12T18:49:09+05:30
Claim Review :   ভিডিওর দাবি পঞ্জাশিরে পাকিস্তানের ড্রোন হানা
Claimed By :  TV9 Bharatvarsh
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story