সিএএ প্রতিবাদীরা ৫০০ টাকা ও বিরিয়ানি না-পাওয়ার অভিযোগ তুলছে? একটি তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি অভিসন্ধিমূলক ভাবে কাটছাঁট করা হয়েছে। মহিলাটি আসলে শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যানের প্রতিবাদ-বিরোধী অভিযোগের বিষয়ে কথা বলছেন।

লখনউয়ের ঘন্টা ঘর-এ এক প্রতিবাদী মুসলিম মহিলার একটি ভিডিও ক্লিপ ভাইরাল করা হয়েছে, যা দেখলে মনে হবে, যেন ওই মহিলা এক সাংবাদিককে জানাচ্ছেন যে, ৫০০ টাকা নগদ এবং বিরিয়ানির লোভ দেখিয়ে লোকেদের প্রতিবাদে টেনে আনা হচ্ছে! ক্লিপটি ভুয়ো এবং অভিসন্ধিমূলক।

বুম দেখেছে, ফেসবুক ও টুইটারে ভাইরাল হওয়া ২৩ সেকেন্ডের এই ভিডিও ক্লিপটি অভিসন্ধিমূলকভাবে কাটছাঁট করা হয়েছে। ভিডিওটির দীর্ঘতর একটি সংস্করণে মহিলা নিজেকে সমীরা বলে শনাক্ত করেছেন এবং শিয়া ওয়াকফ বোর্ডেক চেয়ারম্যান ওয়াসিম রিজভি নাগরিকত্ব আইন-বিরোধী প্রতিবাদ সম্পর্কে যে সব অভিযোগ (Insert Link: ) তুলেছেন, তা নিয়েই তিনি তাঁর বক্তব্য পেশ করছেন। রিজভির অভিযোগ প্রতিবাদীদের, বিশেষত মুসলিম মহিলাদের নানা রকম প্রলোভন দেখিয়ে টেনে আনা হয়েছে।

দিল্লির শাহিন বাগের মতোই লখনউয়ের ঘন্টা ঘরেও মুসলিম মহিলারা নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে লাগাতর প্রতিবাদ জানিয়ে চলেছেন।

আরও পড়ুন: ভাইরাল পোস্টারটি সিএএ-এর বিরুদ্ধে হওয়া প্রতিবাদের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়

কাটছাঁট করা ভিডিওটি একটি ব্যঙ্গাত্মক হিন্দি ক্যাপশন দিয়ে শেয়ার করা হচ্ছে: "কংগ্রেসিরা, একটু তো লজ্জিত হও! একজন তরুণী কীভাবে মাত্র ৫০০ টাকা আর বিরিয়ানি দিয়ে তার সংসার চালাবে! একে তো তোমরা লোককে শোষণ করছো। তার ওপর আবার লখনউ পুলিশ ওখানে নাচাবার গাড়িও লাগাতে দিচ্ছে না। এ ভাবে কী করে চলবে?"

(মূল পোস্ট হিন্দিতে: कांग्रेस वालों कुछ तो शर्म करो,एक अबला खातून 500₹ और बिरयानी में कैसे अपना घर चलाएगी,लोगों का शोषण कर रहे हो ,ऊपर से लखनऊ पुलिस वहां डांसिंग कार भी खड़ी नही होने दे रही, ऐसे कैसे चलेगा)

পোস্টগুলি আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে। ভিডিওটি নীচে দেওয়া হল।

কাটছাঁট করা ভিডিওতে মহিলাটি যেন রিপোর্টারকে বলছে, ''৫০০টাকা দিয়ে এবং বিরিয়ানির লোভ দেখিয়ে মেয়েদের এখানে টানা হচ্ছে! বিশেষ করে বিরিয়ানির জন্যেই মহিলাদের এখানে থাকতে বলা হচ্ছে। এখন আপনিই বলুন, আজকের জমানায় ৫০০টাকায় কী হয়? মহিলারা কি তাদের ঘরবাড়ি, স্বামী, বাবা-মা, বাচ্চা-কাচ্চা ছেড়ে এখানে এসে বসে থাকতে পারে?''

আপাতদৃষ্টিতে ভিডিও ক্লিপটি দেখলে মনে হবে, মহিলাটি শুধু প্রতিবাদে যোগ দেবার জন্য ৫০০টাকা নেবার কথাই স্বীকার করছে না, সেই সঙ্গে এত কম টাকায় কী করে চলবে, সেই অনুযোগও করছে!

বুম দেখেছে, এই দুটি দাবিই সম্পূর্ণ ভুয়ো।

আরও পড়ুন: মিথ্যে: শাহিন বাগে নাগরিকত্ব আইন-বিরোধী সমাবেশে মহিলারা মারামারি করছে

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটি খুঁটিয়ে পরীক্ষা করেছে এবং দেখেছে, এটি যেন হঠাৎ শেষ হয়ে যাচ্ছে। ২০২০-র ১৯ জানুয়ারি ফেসবুক পেজ লখনউলাইভ-এ আপলোড হওয়া ভিডিওটাও বুম দেখেছে।

ভিডিওর শুরুতে এক পুরুষ সাংবাদিক শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াসিম রিজভির প্রতিবাদ-বিরোধী বক্তব্য সম্পর্কে এক মহিলাকে তাঁর প্রতিক্রিয়ার কথা জানতে চাইছে। একটি সাম্প্রতিক ভিডিওতে রিজভি নাগরিকত্ব আইন-বিরোধী প্রতিবাদের সমালোচনা করে তাতে যোগ দেওয়া মহিলাদের 'চরিত্র খারাপ' বলে নিন্দা করে তারা 'পয়সা নিয়ে প্রতিবাদ করছে' এবং তাতে 'লখনউয়ের ঘন্টা ঘরের পরিবেশ দূষিত হচ্ছে' বলে অভিযোগ করেন। রিজভির মন্তব্য দেখুন এখানে

আর রিজভির এই অভিযোগের জবাবেই মহিলাটি বলছেন, "উনি (রিজভি) বলছেন, মহিলারা ৫০০ টাকা আর বিরিয়ানি খাবার লোভে, বিশেষ করে বিরিয়ানির লোভে এখানে প্রতিবাদে যোগ দিয়েছে। মহিলারা তাদের ঘরবাড়ি, স্বামী, বাবা-মা, ছেলেমেয়ে, লেখাপড়া, সর্বস্ব ছেড়ে এখানে শামিল হতে এসেছে। তার চেয়েও বেশি! ৫০০ টাকা তো একজন মুসলিম মহিলা জাকতেই দিয়ে দেয়। ৫০০ টাকার কী দাম আছে, যেখানে মুসলিম মহিলারা হাজার-হাজার, এমনকী লক্ষ-লক্ষ টাকা পর্যন্ত জাকতে দিয়ে দেন! সামান্য ৫০০টা টাকার জন্য তাঁরা কেন ঘন্টাঘরে প্রতিবাদে রাত জাগতে আসবেন ?"

(উল্লেখ্য, ইসলামি রীতি অনুযায়ী জাকত একটি বাধ্যতামূলক দান)

মহিলার সমগ্র বক্তব্যটি দেখতে পুরো ভিডিওটি দেখুন।

ইউটিউবেও এই একই ভিডিও দেখা যাবে।

Updated On: 2020-01-31T21:00:45+05:30
Claim :   নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে ৫০০ টাকা ও বিরিয়ানি পেয়েছে স্বীকার করছে মুসলিম মহিলা
Claimed By :  Facebook and twitter users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.