নদীয়ার চাপড়া বিধানসভা কেন্দ্র নিয়ে ভাইরাল জনমত সমীক্ষা দুটি ভুয়ো

বুম দেখে গ্রাফিক দুটি ভুয়ো। নির্বাচন চলাকালীন এবিপি আনন্দ ও সি ভোটার বিধানসভা কেন্দ্র-ওয়াড়ি কোনও সমীক্ষা প্রকাশ করেনি।

সোশাল মিডিয়ায় বাংলা সংবাদ চ্যানেল এবিপি আনন্দের (ABP Ananda) নামে ভাইরাল হওয়া গ্রাফিক পোস্টে দাবি করা হয়েছে এটি নদীয়ার চাপড়া (Chapra) বিধানসভা আসনের জনমত সমীক্ষা (Opinion Poll)। ওই পোস্টে দাবি করা হয়েছে চাপড়া কেন্দ্রে সি ভোটারের (C-Voter) সমীক্ষায় এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস পার্থী রুকবানুর রহমান।

ছবিটি ফেসবুকে ষষ্ঠদফার নির্বাচনের দিন ২২ এপ্রিলের আগে ভাইরাল করা হয়েছিল। ওই দফায় চাপড়া বিধানসভা আসনেও ভোট গ্রহণ করা হয়। এই কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী হয়েছেন রুকবানুর রহমান। আইএসএফের পক্ষে লড়েছেন কাঞ্চন মৈত্র। আদি বিজেপি নেতা কাঞ্চনকে শান্তিপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করলে বেঁকে বসেন তিনি। দল প্রতারণা করেছে অভিযোগ তুলে মার্চ মাসে কংগ্রেসে যোগ দেন কাঞ্চন মৈত্র। আইএসএফ কাঞ্চন মৈত্রকে প্রার্থী করায় বেঁকে বসে সিপিএম। সিপিএম প্রার্থী করে জাহাঙ্গির বিশ্বসাকে। বিজেপি চাপড়াতে প্রার্থী করে কল্যান কুমার নন্দীকে। ভোটের দিন চাপড়ার আন্দুলিয়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর তৎপরতার খবর প্রকাশিত হয় গণমাধ্যমে

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টটিতে এবিপি আনন্দের লোগো সহ দাবি করা হয়েছে সেটি সি ভোটারের জনমত সমীক্ষা। ওই গ্রাফিকে দেখা যায় চাপড়া বিধানসভা কেন্দ্রে ৫১.৮ শতাংশ জনমত সমীক্ষার আঙ্কে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। জনমত সমীক্ষায় ২৮.৬ শতাংশ পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বিজেপি। সিপিআইএম এর সহযোগীরা ১০.৭ শতাংশ এবং ৮.৯ শতাংশ ভোট পাবে অন্যান্যরা।

গ্রাফিক পোস্টটি ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "সি ভোটার সমীক্ষায় তৃণমূল প্রার্থী রুকবানুর রহমান বিপুল ‌ভোটে জয়ী হচ্ছে, আগামী ২ রা মে চাপড়াতে সবুজ আবির খেলা হবে, তৈরি থাকুন সকল তৃণমুল সৈনিকবৃন্দ। রুকবানুর রহমান নিশ্চিত ভাবে জিতছে... জিতছে... জিতছে....তৃনমূল কংগ্রেস জিন্দাবাদ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জিন্দাবাদ, রুকবানুর রহমান জিন্দাবাদ"

পোস্টটি নিচে দেখুন

বুম চাপড়া বিধানসভা কেন্দ্র নিয়ে আরেকটি একই ধরণের জনমত সমীক্ষা খুঁজে পায়। ওই সমীক্ষায় নির্দল প্রার্থীকে ৪৫ শতাংশ ভোটে এগিয়ে রাখা হয় সবার থেকে। বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসকে যথাক্রমে দওয়া হয়েছে ২৫ ও ২০ শতাংশ।

ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পডুন: ভাইরাল ছবিটি সিপিআইএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরির পুত্র শোকের নয়

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া গ্রাফিক দুটি ভুয়ো। এবিপি আনন্দ ও সি ভোটার বিধানসভা কেন্দ্র-ওয়াড়ি কোনও সমীক্ষা প্রকাশ করেনি নির্বাচন চলাকালীন।

বুম দেখে এবিপি ও সি ভোটার ২০২১ সালে বিধানসভা ভোট নিয়েফেব্রুয়ারিমার্চ মাসে দু'বার জনমত সমীক্ষা প্রকাশ করে।

এবিপি ও সিএনএক্স এবছরের মার্চ মাসে আরও একটি জনমত সমীক্ষাপ্রকাশ করে।

এই তিনটি জনমত সমীক্ষায় সার্বিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেস, বিজেপি, বাম-কং-আইএসএফ জোট সংযুক্ত মোর্চার ভোটের শতাংশ দেখানো হয়েছে। আলাদ করে বিধানসভা কেন্দ্রওয়াড়ি সমীক্ষা দেখানো হয়নি।

বুম এবিপি আনন্দ-তে চাপড়া কেন্দ্র নিয়ে আলাদাভাবে সি ভোটারের সমীক্ষা খুঁজে পায়নি।

বুম আগে কলকাতা টিভির ভুয়ো জনমত সমীক্ষার তথ্য-যাচাই করেছে। ওই ভুয়ো গ্রাফিকে দাবি করা হয়েছিল নন্দীগ্রাম আসনে এগিয়ে রয়েছে শুভেন্দু অধিকারী। সম্পাদিত আনন্দবাজার পত্রিকার ছবি পোস্ট করে দাবি করা হয়েছিল পুরশুড়া কেন্দ্রে জয়ী হতে পারে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী। নন্দীগ্রাম নিয়ে আরেক জনমত সমীক্ষাকে ভুয়ো বলে দাবি করে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশেরের সংস্থা আই-প্যাক

আরও পড়ুন: স্ত্রীকে কুপিয়ে খুন করার ভিডিও ক্লিপ সাংবাদিক খুনের খবর বলে চালানো হয়

Updated On: 2021-04-23T18:27:03+05:30
Claim Review :   এবিপি সি ভোটার জনমত সমীক্ষায় নদীয়ার চাপড়া বিধানসভা কেন্দ্রে এগিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story