করোনাভাইরাস: ইন্দোনেশিয়ার বাজারের ছবি চিনের উহানের বলে চালানো হচ্ছে

বুম দেখে ভিডিওটি ইন্দোনেশিয়ার একটি বাজারের, যেখানে বিচিত্র সব প্রাণী বিক্রি হয়।

ইন্দোনেশিয়ার একটি বাজারের ভিডিও, যেখানে সুস্বাদু খাবারের উপাদান হিসেবে অদ্ভুত সব জীবজন্তু বিক্রি হয়, সেটিকে চিনের উহান অঞ্চলের বাজারের ছবি বলে শেয়ার করা হচ্ছে। উহান হল সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের উৎসস্থল।

ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল এই ভিডিওর ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "চিনের উহান বাজার, #করোনাভাইরাসের উৎসস্থল।"

ক্যাপশনে দাবি করা হয়েছে ওই বাজারটিতে বিচিত্র সব প্রাণী সুখাদ্য হিসেবে বিক্রি হয়। এবং সেখান থেকেই ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। ওই নতুন ভাইরাসটি অনেক দেশে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। ভারতেও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে, চিনের উহান থেকে ছড়িয়েছে ওই করোনাভাইরাস। এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে চিনে ২১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়। ভারতেও কয়েকটি সন্দেহজনক ঘটনার কথা শোনা গেলেও, স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গেছে এখনও পর্যন্ত ভারতের কেরলে আক্রান্ত হয়েছেন একজন। ওই ব্যক্তি উহান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাসের পেটেন্ট রয়েছে? সোশাল মিডিয়ার পোস্টগুলি কেন বিভ্রান্তিকর

সতর্ক বার্তা: দেখার আগে ভাবুন

ওই একই মিথ্যে ক্যাপশন সমেত ভিডিওটি অনেকেই ফেসবুকে শেয়ার করেছেন এই বলে যে, জায়গাটা চিনের উহান।



তথ্য যাচাই

বুম দেখে যে ভিডিওটি ইন্দোনেশিয়ার, চিনের নয়। সেটি ইন্দোনেশিয়ার উত্তর সুলাওয়েসি অঞ্চলের পসার ট্র্যাডিশনাল ল্যাঙ্গোওয়ান-এ তোলা হয়।

আমরা লক্ষ করি যে, ভিডিওটির প্রথম কয়েকটি ফ্রেমে 'পসার এক্সট্রিম ল্যাঙ্গোওয়ান' লেখা রয়েছে। গুগুলে সার্চ করলে, ইউটিউবে ইন্দোনেশিয়ার একটি বাজারের ভিডিও সামনে আসে। সেখানে বিভিন্ন প্রজাতির ইঁদুর, সাপ, বাদুড় ও কুকুর সুস্বাদু খাবার হিসেবে বিক্রি হতে দেখা যায়।

ভাইরাল ভিডিওটির একটি ফ্রেম দিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে, ২০ জুলাই ২০১৯ ইউটিউবে আপলোড করা একটি ভিডিওর সন্ধান পাওয়া যায়। 'পসার এক্সট্রিম ল্যাঙ্গোওয়ান', এই একই লেখা ভিডিওটিতে চোখে পড়ে।

ভাইরাল ভিডিও ও ইউটিউবে আপলোড করা ভিডিওর মধ্যে অনেক মিল দেখতে পাই আমরা।


দু'টি ভিডিওরই ২০ সেকেন্ডের মাথায় আমরা ডান দিকে একটা বাড়ি দেখতে পাই। ইন্দোনেশীয় ভাষায় লেখা একটা সাইনবোর্ড লাগানো আছে বাড়িটায়। ইংরেজিতে তার মানে দাঁড়ায়, 'গভর্নমেন্ট অফ মিনহাসা রিজেন্সি। ট্রেড ডিপার্টমেন্ট। ল্যাঙ্গোওয়ান মার্কেট অফিস (মিনহাসা রিজেন্সি সরকার। বাণিজ্য দপ্তর। ল্যাঙ্গোওয়ান বাজার অফিস)। ওই জায়গা সম্পর্কে সার্চ করলে দেখা যায়, ল্যাঙ্গোওয়ান ইন্দোনেশিয়ার উত্তর সুলাওয়েসি অঞ্চলে অবস্থিত। সেখানকার জনসংখ্যার বেশিরভাগই হলেন মিনাহাসান জনগোষ্ঠীর মানুষ।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে ওই বাজার সম্পর্কে অনেক লেখালিখি হয়েছে। ফলে, একটি পর্যটন কেন্দ্র হয়ে উঠেছে সেটি। কি ধরনের বিচিত্র সব প্রাণী স্থানীয় খাদ্য হিসেবে বিক্রি হয়, তাই দেখতে পর্যটকরা ভিড় করেন সেখানে। ফটো সরবরাহকারী সংস্থা 'গেট্টিইমেজেস'-এ থাকা ল্যাঙ্গোওয়ান বাজারের ছবির সঙ্গে ভাইরাল ভিডিওর দৃশ্য মিলে যায়।

বলা হচ্ছে, রহস্যময় ও মারাত্মক করোনাভাইরাসের উৎপত্তি উহানের 'হুনান সিফুড হোলসেল' বাজারে। প্রথম কয়েকটি সংক্রমণ ঘটে ডিসেম্বর ২০১৯-এ। সেই সব রোগীদের শরীরে নিউমোনিয়ার মত লক্ষণ দেখা যায়। তারপর উহানের বাজারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। সেই থেকে সংক্রমণ ঠেকাতে চিনা কর্তৃপক্ষ দিনরাত চেষ্টা করে চলেছেন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে, ভারত সাতটি বিমানবন্দরে যাত্রীদের স্ক্রিন বা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা করেছে। এখনও পর্যন্ত ৩৫,০০০ যাত্রীকে স্ক্রিন করা হয়েছে।

Updated On: 2020-01-31T16:05:38+05:30
Claim Review :   ভিডিও দেখায় অস্বাস্থকর প্রাণী চিনের উহান বাজারে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story